• বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

স্কুল মাঠ দখল করে গাছের চারা রোপণ!

  হুমায়ুন কবির সূর্য, কুড়িগ্রাম

২২ মে ২০২২, ১৪:৪৯
স্কুল মাঠ দখল করে গাছের চারা রোপণ!
স্কুল মাঠের ১৫ শতক জমি নেট দিয়ে ঘিরে দখল করে গাছের চারা রোপণ করেছে একটি পক্ষ (ছবি: অধিকার)

জমি নিয়ে বিবাদে কুড়িগ্রামের একটি স্কুল মাঠের ১৫ শতক জমি নেট দিয়ে ঘিরে দখল করে গাছের চারা রোপণ করেছে একটি পক্ষ। শুধু তাই নয় তারা স্কুলের বাউন্ডারির ভিতরে দখলকৃত জায়গায় দোকানঘর নির্মাণের চেষ্টা করছে। ফলে এলাকায় টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। এতে বন্ধ হয়ে গেছে শিশু শিক্ষার্থীদের খেলাধূলা ও বিনোদন। স্কুলের স্বাভাবিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে দ্রুত সমাধান চান অভিভাবকরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার রামখানা ইউনিয়নের নাখারগঞ্জ এলাকায় ৯৮ শতক জমিতে ১৯৯৩ সালে স্থাপিত হয় শিয়ালকান্দা বহুমূখী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়টি। ১৮ জন শিক্ষক এবং ৪ শতাধিক শিক্ষার্থীর এই প্রতিষ্ঠানটি গতবারেও উপজেলা পর্যায়ে এসএসসি ফলাফলে দ্বিতীয় হয়। এই মাঠে খেলেই ২০১৬ সালে জাতীয় পর্যায়ে শীতকালীন স্কুল প্রতিযোগিতায় পোলভল্টে সাকোয়াত নামে এক শিক্ষার্থী স্বর্ণপদক লাভ করে। কিন্তু জমিদাতাদের বিবাদে সেই স্কুল মাঠই এখন বেদখল হওয়ার মত অবস্থা।

স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা জমিদাতা মৃত ফজলুল হক মেম্বার প্রতিবেশী মীর মতিয়ার রহমান নামে একজনের কাছ থেকে ৩২ শতক জমি রেওয়াজ বদল করে স্কুলকে প্রদান করেন। এর মধ্যে ১৫ শতক স্কুলের নামে লিখে দেয়া হলেও ১৭ শতক জমি লিখে দেয়া হয়নি। এই ১৭ শতক জমির বদলী হিসেবে যে জমিটি মতিয়ার রহমান দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে ভোগদখল করে আসছিলেন সেই জমিটিও গতবছর দখল করে নেয় প্রতিষ্ঠাতা জমিতাদার স্বজনরা। ফলে ১৭ শতক জমি না পেয়ে স্কুল মাঠে অবস্থিত রেজিষ্ট্রি না করে দেয়া ১৭ শতক জমি দখলে নেয় মীর মতিয়ার রহমানের ছেলে মীর শাহ আলম। ফলে বন্ধ হয়ে গেছে স্কুল মাঠে শিশুদের বিনোদন ও খেলাধূলা। শিশুরা চায় খেলাধূলার সুস্থ পরিবেশ। স্থানীয়দের দাবি মীর মতিয়ার রহমানের জমি ফিরিয়ে দেয়া হোক।

মাঠ দখলকারী মীর শাহ আলম জানান, স্কুলের জমিদাতারা আমার বাবার কাছ থেকে জমি নিয়ে বদলি হিসেবে যে জমি দিয়েছে তা লিখে দেয়নি। ফলে জমিদাতার মৃত্যুর পর তার স্বজনরা সেই জমি দখলে নিয়েছে। এ নিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে ধরণা দিয়েও জমি না পেয়ে এই কাজ করতে বাধ্য হয়েছি।

প্রধান শিক্ষক মুহা. জালাল উদ্দিন সরকার জানান, আমাদের সাথে কোন প্রকার আলোচনা না করেই হঠাৎ করে স্কুল মাঠের ১৫ শতক জমি নেট দিয়ে ঘেরাও করে নেয় মীর শাহ আলম নামে এক ব্যক্তি। সেখানে তারা ৬০টি চারা রোপণ করে। এছাড়া দোকানঘর করার জন্য ইট ফেলে সেখানে ফাউন্ডেশন দেয়ার কার্যক্রম শুরু করে। পরে পুলিশ এসে কাজ বন্ধ করে দেয়। বিষয়টি সমাধানে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।

স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হাফিজ আল আসাদ সুমন বলেন, একটি পক্ষ উষ্কানি দিয়ে এই কাজটি করেছে। আমরা দ্রুত এর সমাধানের চেষ্টা করছি।

অভিভাবকদের পক্ষ থেকে মৃত আব্দুল মালেক শেখের ছেলে মো. জাহাঙ্গীর ও মৃত ময়েন উদ্দিনের ছেলে আব্দুল জব্বার বলেন, স্কুল কর্তৃপক্ষের উদাসীনতার কারণে এই অপ্রীতিকর অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। যারা জমি দখল করে আছে, তারা ১৭ শতক জমি পাবেন। তাদেরকে জমি বুঝিয়ে দিলে আজকে এই অবস্থার সৃষ্টি হতো না। এর জন্য স্কুল কর্তৃপক্ষের গাফিলতি রয়েছে। আমরা চাই মাঠের পূর্বের পরিবেশ দ্রুত ফিরিয়ে আনা হোক।

শিয়ালকান্দা ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুস সালাম জানান, স্কুলে গোপনভাবে গভর্নিং কমিটি গঠন ও ৩ জনকে নিয়োগ দেয়াকে কেন্দ্র করে জমিদাতা ও এলাকাবাসীর মধ্যে বিরোধকে কেন্দ্র করে এই পরিস্থিতির উদ্ভব হয়েছে। সবাই মিলে বসে এটার সমাধান করা দরকার।

আরও পড়ুন: স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ

এ ব্যাপারে জেলা শিক্ষা অফিসার শামসুল আলম জানান, জমির বিষয়টি মীমাংসা না হওয়া পর্যন্ত নিয়োগ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। এছাড়াও স্কুলে জমি সংক্রান্ত যে সমস্যা রয়েছে তা সমাধানে সব ধরণের উদ্যোগ নেয়া হবে। যাতে শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত না হয়।

ওডি/এমকেএইচ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড