• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

  রফিকুল ইসলাম রফিক, গাইবান্ধ

১৯ মে ২০২২, ১৩:৩৮
ছবি : দৈনিক অধিকার

যৌতুক না পেয়ে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা মামলায় আতোয়ার রহমান নামে এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) দুপুরে গাইবান্ধা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আতোয়ার রহমান গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শতিরজান চর এলাকার বাসিন্দা।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০০৫ সালে আতোয়ার রহমান পার্শ্ববর্তী গ্রামের আনোয়ারা বেগমকে বিয়ে করেন। তাদের দাম্পত্য জীবনে ১৩ বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে যৌতুকসহ বিভিন্ন পারিবারিক বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য চলে আসছিল।

২০১৯ সালের ৬ জানুয়ারি সকালে স্ত্রীকে যৌতুকের জন্য চাপ দেন আতোয়ার। এতে স্ত্রী অসম্মতি জানালে এদিন রাতে আতোয়ার স্ত্রী আনোয়ারাকে লোহার রড দিয়ে বেধড়ক মারপিট করে। পরে আহত আনোয়ারাকে বাড়ির উঠানে নিয়ে তারই ওড়না গলায় পেঁচিয়ে টানাহেচড়া করতে থাকেন। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান আনোয়ারা।

এ ঘটনায় পরদিন নিহতের ভাই মহির উদ্দিন বাদী হয়ে আতোয়ারকে একমাত্র আসামি করে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এর এক সপ্তাহ পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে আতোয়ারকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ফারুক আহম্মেদ প্রিন্সি বলেন, ‘আসামি আতোয়ার গ্রেফতারের পর আদালতে ১৬৪ ধারায় হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। এরপর দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিচারক আজ এ রায় দেন।

ওডি/মাহমুদ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড