• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

দুই গৃহবধূর শরীর ঝলসে দিল পাষণ্ড স্বামী

  মো. আফসার খাঁন বিপুল, কালিয়াকৈর (গাজীপুর)

১৮ মে ২০২২, ১৯:৪০
দুই গৃহবধূর শরীর ঝলসে দিল পাষাণ্ড স্বামী
স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ির নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ শাহিদা আক্তার (ছবি: অধিকার)

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে স্বামী ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে গরম তেল ও ভাতের মাড় ঢেলে শাহিদা ও বিউটি নামে দুই গৃহবধূকে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ পৃথক ঘটনায় থানায় দুটি অভিযোগ দায়ের করা হয়।

এর মধ্যে বুধবার (১৮ মে) এ ঘটনায় শাহিদার বাবা সাইজ উদ্দিন বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। আহতরা হলেন, কালিয়াকৈর উপজেলার নামাশুলাই এলাকার রুবেল মিয়ার স্ত্রী শাহিদা আক্তার (২২) ও সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানার জগতলা এলাকার মাসুদ সরকারের স্ত্রী বিউটি আক্তার (২২)।

এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত বছর কালিয়াকৈর উপজেলার টালাবহ এলাকার সাইজ উদ্দিনের মেয়ে শাহিদা আক্তারের সঙ্গে পারিবারিকভাবে একই উপজেলার নামাশুলাই এলাকার নিগুম বাদশার ছেলে রুবেল মিয়ার বিয়ে হয়। তাদের সংসার জীবনে রাকিবুল ইসলাম সাদিত নামে তিন বছরের এক ছেলে সন্তান আছে। কিন্তু ছেলে জন্ম নেওয়ার পর থেকে টাকা-পয়সা দাবি করে শাহিদাকে বিভিন্ন সময় তার স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ি নির্যাতন করে আসছিলেন।

এরই ধারাবাহিকতায় গত মঙ্গলবার (১৭ মে) দুপুরে তাকে বাবার বাড়ি থেকে ৩ হাজার টাকা এনে দিতে বলেন স্বামী রুবেল। এতে অস্বীকার করলে তাদের মধ্যে ঝগড়ার সৃষ্টি হয়। এক পর্যায় স্বামী রুবেল ও শাশুড়ি রমিছা বেগম গরম ভাতের মাড় তার শরীরে ছুড়ে দেয়। এতে তার বাম হাত, কান, পিটসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে যায়। খবর পেয়ে তার বাবার বাড়ির লোকজন নামাশুলাই এলাকায় গিয়ে তাকে উদ্ধার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখান থেকে গতকাল বুধবার তাকে ঢাকার বার্ন ইউনিটে রেফার্ড করা হয়। কিন্তু বাবা-মায়ের অর্থ অভাবে তার উন্নত চিকিৎসা হচ্ছে না।

আহত গৃহবধূ শাহিদা বলেন, বিয়ের পর বিভিন্ন সময় বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনে দিতে বলেন আমার স্বামী রুবেল। টাকা-পয়সা না দিলে তিনিসহ শ্বশুর-শাশুড়ি বিভিন্ন সময় নির্যাতন করতেন। সর্বশেষ মঙ্গলবারও তিনি আমাকে তিন হাজার টাকা এনে দিতে বলেন। আমি অস্বীকার করলে রুবেল ও শাশুড়ি আমার শরীরে গরম ভাতের মাড় ঢেলে দেয়।

যৌতুক চাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে অভিযুক্ত স্বামী রুবেল জানান, আমাদের শিশু সন্তানকে মারধর করলে আমি আমার স্ত্রীকে শাসন করতে যাই। এ সময় রান্নারত গরম ভাত হঠাৎ তার শরীরে গিয়ে পড়ে।

কালিয়াকৈর থানার ডিউটি অফিসার উপপরিদর্শক (এসআই) রাহাদুজ্জামান আকন্দ জানান, গরম ভাতের মাড় ঢেলে ঝলসে দেওয়ার ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ হয়েছে।

অপরদিকে গত পাঁচ বছর পূর্বে মাসুদ সরকারের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিউটি আক্তারের বিয়ে হয়। পরে তারা কালিয়াকৈর উপজেলার আহম্মদ নগর চৌরাস্তা এলাকার কাদের সিকদারের বাড়িতে থেকে স্থানীয় পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন। বিবাহের পর থেকেই বিউটির স্বামী মাসুদ ও তার পরিবারের লোকজন যৌতুকের দাবিতে নানাভাবে অন্যায়- অত্যাচার নির্যাতন করায় বিউটি আক্তার তার স্বামী মাসুদসহ তার পরিবারের লোকজনদের নামে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ সিরাজগঞ্জ আদালতে মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলা বিচারাধীন থাকা অবস্থায় মাসুদ বিগত ৪ মাস আগে এলাকার গণ্যমান্য লোকজনদের সহায়তায় বিউটির সাথে আপস মীমাংসা করে পুনরায় সংসার শুরু করে।

সংসার শুরু করার পর কিছুদিন যেতে না যেতেই মাসুদ আবার বিউটি আক্তারের উপর নির্যাতন করতে থাকে। এক পর্যায়ে গত শুক্রবার রাতে ঘুমন্ত থাকা অবস্থায় গরম তেল বিউটি আক্তারের মুখসহ সারাদেহে ঢেলে দেয় মাসুদ সরকার। এতে তার মুখসহ সারাদেহ ঝলসে গেলে স্বামী মাসুদ পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সফিপুর তানহা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক ইন্সটিটিউটে পাঠানো হয়।

আরও পড়ুন: ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা

কালিয়াকৈর থানার তদন্ত ওসি আবুল বাশার জানান, গরম তেল ঢেলে গৃহবধূকে ঝলসে দেওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে অভিযুক্ত স্বামী মাসুদ সরকারকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ওডি/এমকেএইচ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড