• মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

গাইবান্ধায় শিক্ষার্থী অপহরণ, সপ্তাহেও মেলেনি খোঁজ

  রফিকুল ইসলাম রফিক, গাইবান্ধা

১২ মে ২০২২, ২০:২৯
অপহৃত শিক্ষার্থী কামরুল হাসান
অপহৃত শিক্ষার্থী কামরুল হাসান। (ছবি : সংগৃহীত)

গাইবান্ধা সদর উপজেলার কামরুল হাসান (১৫) নামে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। সন্দেহের তীর একই এলাকার ব্যবসায়ী মাহাবুবের দিকে।

গত মঙ্গলাবার (১০ মে) অপহৃত শিক্ষার্থীর বাবা কয়েকজনকে অভিযুক্ত করে সদর থানায় একটি লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, গাইবান্ধা সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের বালাআটা গ্রামের কুমারের ভিটা পাড়া রিয়াজুল ইসলামের সাথে একই গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের ছেলে মাহাবুবের জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রিয়াজুলের ছেলে কামরুল হাসান গাইবান্ধা শহর থেকে বই কিনে বাইসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে গড়ের বাতা এলাকায় মাহাবুব ও তার সহযোগীরা তাকে অপহরণ করে মাইক্রোবাস যোগে করে নিয়ে যায়।

এ সময় কামরুলের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে মাইক্রোবাসটি দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে ছেলে অপহরণের বিষয়টি জানতে পেরে কামরুলের বাবা বিভিন্ন যায়গায় ছেলেকে খুঁজতে থাকে। ছেলেকে না পেয়ে মাহবুব রহমান, মেহের আলী, আশাদুল হক, সাইফুল ইসলামসহ কয়েকজনকে আসামি করে সদর থানায় একটি এজাহার দায়ের করেন।

এদিকে অপহরণের এক সপ্তাহ পার হলেও পুলিশ স্কুলছাত্র কামরুল হাসানকে উদ্ধার করতে পারেনি। এতে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন স্বজনরা।

অপহরণের অভিযোগের বিষয়ে অভিযুক্ত মাহাবুব বলেন, আমি ওই ছেলেকে অপহরণ করনি।

গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ওয়াহেদুল ইসলাম মুঠোফোন জানান, অপহরণের বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। স্কুল শিক্ষার্থী কামরুল হাসানকে উদ্ধারে অনুসন্ধান চলছে।

ওডি/জেআই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড