• বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মাদরাসার কমিটি গঠনে অনিয়ম

  মাজেদুল ইসলাম হৃদয়, ঠাকুরগাঁও

১২ মে ২০২২, ১২:১৩
মাদরাসার কমিটি গঠনে অনিয়ম
মাদরাসার কমিটি গঠন । ছবি : অধিকার

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে ধনতলা ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসা পরিচালনা কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি বিধি মোতাবেক কমিটি গঠন ও নিয়োগ-বাণিজ্য বন্ধ চেয়ে এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষরিত অভিযোগ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের রেজিস্ট্রার বরাবর জমা দিয়েছেন আলাউল কবির নামে এক ব্যক্তি।

অভিযোগ আমলে নিয়ে শিক্ষা বোর্ডের রেজিস্ট্রার সিদ্দিকুর রহমান গত ১০ এপ্রিল বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) দায়িত্ব দিয়েছেন।

এদিকে, ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করতে ১২ মে ইউএনওর কার্যালয়ে শুনানির দিন ধার্য করে দুপক্ষকেই হাজির হওয়ার নির্দেশনা দিয়ে চিঠি দিয়েছেন ইউএনও। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইউএনও যোবায়ের হোসেন।

অভিযোগে বলা হয়েছে , নাজরুল ইসলাম সুপারিনটেডেন্ট আমিরুল ইসলামকে ম্যানেজ করে ২০১৪ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ২০২১ সালে সভাপতি নজরুল ইসলাম তার ছোট ভাই এবং সুপারিনটেনডেন্ট আমিরুল ইসলাম তার ভাগিনাকে মাদরাসায় গোপনে নিয়োগ দিয়েছেন বলে অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।

অভিযোগকারী আলাউল কবির জানান, নিয়ম বহির্ভূতভাবে বারবার অ্যাডহক কমিটি গঠন করে দীর্ঘ ৮ বছর ধরে নজরুল ইসলাম সভাপতির পদ দখল করে রেখেছেন। গত বছরের জানুয়ারি মাসে একটি পকেট কমিটি গঠন করে মাদরাসা বোর্ডে অনুমোদনের জন্য দাখিল করেন সুপারিনটেনডেন্ট আমিরুল ইসলাম ও সভাপতি নজরুল। সেই কমিটি মাদরাসা বোর্ড অনুমোদন দিলে পুনরায় সভাপতির দায়িত্ব পান নজরুল। কাগজে কলমে নির্বাচনের মাধ্যমে কমিটি গঠন দেখানো হলেও বাস্তবে কোনো নির্বাচন হয়নি।

স্থানীয় নাজিম উদ্দীন বলেন, 'মাদরাসার শিক্ষার মান ঠিক রাখতে বিধি মোতাবেক পরিচালনা কমিটি গঠন করা হোক। এটা এলাকার সকলের দাবি।’ অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে মাদরাসার সভাপতি নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আলাউল কবিরের সঙ্গে আমার পূর্ব শত্রুতা রয়েছে। এ কারণে বিভিন্ন মহলে তিনি অভিযোগ করছেন। কমিটি গঠন নিয়ম মেনেই হয়েছে। নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ ভিত্তিহীন। বরং তারাই মাদরাসার জমি অবৈধভাবে দখল করে দোকান নির্মাণ করেছেন।’

মাদরাসার সুপার আমিরুল ইসলাম ও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুর রহমান দাবি করেন, নিয়ম মেনেই কমিটি গঠন হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) যোবায়ের হোসেন বলেন, ‘ মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডের চিঠি পাওয়ার পর তদন্ত করতে অভিযোগকারী এবং মাদরাসার সুপার ও সভাপতিকে অভিযোগের শুনানিতে আগামী ১২ মে উপস্থিত হতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

ওডি/ওএইচ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড