• বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারের ৪ জন দগ্ধ

  সারাদেশ ডেস্ক

১০ মে ২০২২, ১১:২৩
অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারের ৪ জন দগ্ধ
বার্ন ইনস্টিটিউট । ছবি : অধিকার

নারায়ণগঞ্জে ফতুল্লায় গ্যাস লাইন লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে শিশুসহ একই পরিবারের ৪জন অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ হয়েছে। তাদেরকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ মে) ভোর ৫টার দিকে ফতুল্লা পোস্ট অফিস এলাকার একটি টিনসেড বাড়িতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলো- একটি কারখানা শ্রমিক রোজিনা আক্তার (৩৩), তার স্বামী রিকশা চালক আনোয়ার হোসেন (৪০), ছেলে রোমান (১৭) ও রোহান (৯)। রোজিনার বাড়ি ময়মনসিংহ হালুয়ায় আর আনোয়ারের বাড়ি বরিশাল হিজলা উপজেলায়।

দগ্ধ রোজিনা সাংবাদিকদের জানায়, ভোরে তিনি জেগে ছিলেন। তবে স্বামী ও দুই ছেলে ঘুমিয়ে ছিলেন। তখন হঠাৎ বাসার ভিতর বিস্ফোরণে আগুন জ্বলে উঠে। মুহূর্তেই আগুন লেগে যায় তাদের শরীরে। ঘুমন্ত অবস্থা থেকে ছেলেদের তুলে বাড়ির বাইরে বের হন তিনি। ততক্ষণে তাদের ৪ জনের শরীরই ঝলসে গেছে।

আনোয়ার হোসেনের ভাবি রুনা আক্তার অভিযোগ করেন, ওই বাড়িটির পাশ দিয়ে অন্য বাড়ির একটি গ্যাস লাইন নেওয়া হয়েছে। পুরাতন সেই পাইপ লাইনটির রাইজার ছিল আনোয়ারদের ঘরের জানলার পাশে। সেখান থেকে সব সময়ই গ্যাসবের হতো। সবসময়ই গ্যাসের গন্ধ পাওয়া যেত। এটি বাড়ির মালিককে বার বার বলা হয়েছে মেরামত করে দিতে। তবে তা ঠিক করে দেয়নি।

স্বজনদের অভিযোগ, ঠিক সময়ে এটি মেরামত করে দিলে আজ এই দুর্ঘটনা ঘটতো না।

বার্ন ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. এসএম আইউব হোসেন জানান, রোজিনার শরীরের ১৪ শতাংশ, আনোয়ারের ১৭, রোহানের ৩৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। তাদের ৩ জনকে ভর্তি রাখা হয়েছে। আর রুমানকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ওডি/ওএইচ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড