• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অসহায় পরিবারের বাড়িঘর দখলে নিতে আগুন

  মনিরুজ্জামান, নরসিংদী

০৮ মে ২০২২, ১১:২৩
ছবি : দৈনিক অধিকার

নরসিংদীর মাধবদী থানাধীন মহিষাশুরা ইউনিয়নের খিলগাঁও এলাকায় এক অসহায় পরিবারের বাড়িঘর দখলে নিতে বসতবাড়িতে অগ্নিসংযোগ, মামলার বাদী আল-আমিন, তার স্ত্রী গৃহবধূ তাছলিমা আক্তার ও ছেলে শাকিল হাসানসহ বাড়ির লোকজনকে মারধর ও হুমকির ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় গৃহবধূ তাছলিমা আক্তারের স্বামী মো. আল-আমিন বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামি করে নরসিংদী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

আসামিরা হলো- মোমেন (৩৫) রমজান(৩২) একবর আলী (৫০) মাহমুদা (৩০)।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, মামলার আসামীগণ দীর্ঘদিন ধরে বাদীকে তার বসত বাড়ির জমিটুকু বিক্রি করার প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। কিন্তু এতে তারা রাজি না হওয়ায় তাদের বিভিন্নভাবে হয়রানি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিল।

এ নিয়ে আসামি পক্ষের লোকজন দীর্ঘদিন ধরে বাদীর পরিবারের সহিত শত্রুতা চালিয়ে আসতেছিল। এ নিয়ে আসামীগণ ও তাদের পরিবারের লোকজন বাদী ও তার পরিবারের সদস্যদের একাধিকবার মারধর করেছে।

পরে অত্র মামলার বাদী আল-আমিনের স্ত্রী তাছলিমা (৩৫) বাদী হয়ে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত নরসিংদীতে পৃথক ২টি মামলা দায়ের করেছেন যাহার নং মাধবদী সি,আর মামলা নং-৩২৭/২০২১ইং ও মাধবদী সি,আর মামলা নং-৭০/২০২১ইং । মামলা ২ টি বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে।

গত রবিবার ( ২৭ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে চারটার দিকে আসামিরা বাদীর বাড়িতে গিয়ে তাদের বিরুদ্ধে বিচারাধীন মামলা তুলে নেওয়ার জন্য বাদী ও তার পরিবারের লোকদের চাপ ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে।

তাছাড়া আসামিদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ তুলে নিয়ে তাদের কথামত যদি জমি লিখে না দেয় তাহলে তাদের বাড়িঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে তাদের মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এ সময় বাদী ও তার ছেলে প্রতিবাদ করলে তাদের বেদম মারধর করে তাদের বসত বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়ে চলে যায়।

পরে তাদের ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় কিন্তু ততক্ষণে তাদের সবকিছু পুড়ে ছারখার হয়ে যায়।

মামলার বাদী আল-আমিন বলেন,আমরা খুবই সাধারণ ও অসহায় পরিবারের লোক। তারা বহুদিন ধরে আমার বাড়ির জমিটুকু নেওয়া পায়তারা করছে। জমি দিতে রাজি না হওয়ায় এর আগেও আমার স্ত্রী ও ছেলেকে অনেকবার মারধর করেছে। এ নিয়ে আদালতে ২ টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

ঘটনার দিন ও তারা তাদের জমি লিখে না দিলে এবং তাদের নামে যে মামলা হয়েছে তা তুলে না নিলে আমাদের প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে। আমি ও আমার ছেলে এতে প্রতিবাদ করায় আমাদেরকে মারধর করে বাড়িঘরে আগুন দিয়ে সব কিছু পুড়িয়ে দিয়েছে। বর্তমানে আমি একেবারে সর্বশান্ত হয়ে পথে বসার উপক্রম হয়েছে। আমি আপনাদের মাধ্যমে সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি। তারা যেন ঘটনার সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করেন সেই দাবি জানাই।

ঘটনার সত্যতা জানতে শুক্রবার (৬ মে) বিকেলে সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গেলে মুহূর্তে প্রায় ৩০-৪০ জন লোক জড়ো হয়।

তাদের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তারা বলেন, ঘটনার দিন আমরা সবাই দোকানে আড্ডা দিচ্ছিলাম। এমন সময় মসজিদের মাইক দিয়ে আগুন লাগার বিষয়টি এলাকাবাসীকে জানানো হয়।

পরে আমরা সবাই গিয়ে অক্লান্ত পরিশ্রম করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। এ ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তারা।

এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের কাছে জানতে চাইলে তারা তাদের বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তারা নিজেদের ঘরে নিজে আগুন ধরিয়ে আমাদের ফাঁসানোর ষড়যন্ত্র করছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য ওসমান গনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তাছলিমার বসত বাড়িতে আগুন লাগার পর এলাকার লোকজন এগিয়ে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে কে বা কারা আগুন লাগিয়েছে এব্যাপারে আমার জানা নেই। কিছুদিন পর পরই তাদের মধ্যে ঝগড়া হয় বলে ও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে জানতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মাধবদী থানার এসআই জাহিদুল ইসলামকে একাধিকবার ফোন করে ও পাওয়া যায় নি।

ওডি/মাহমুদ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড