• বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পর্যটকদের মোবাইল-স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নিচ্ছেন মাদক কারবারিরা

  নজরুল ইসলাম শুভ, সোনারগাঁ ( নারায়ণগঞ্জ)

০৭ মে ২০২২, ১৬:২৪
পর্যটকদের মোবাইল-স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নিচ্ছেন মাদক কারবারিরা
সোনারগাঁ জাদুঘর । ছবি : অধিকার

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে প্রতিদিনই বেড়ে চলছে মাদক কারবারিদের দৌরাত্ম। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নাম ব্যবহার করে অদৃশ্য ক্ষমতার বলে এসব মাদক ব্যবসায়ীরা প্রতিদিনই জড়িয়ে পড়ছেন ছিনতাই, ডাকাতি, চাঁদাবাজি, ইভটিজিংসহ বিভিন্ন অপরাধ কর্মকাণ্ডের সঙ্গে।

সোনারগাঁয়ে ঘুরতে আসা পর্যটকদের ইভটিজিংসহ, মোবাইল সেট, অর্থ ও স্বর্ণালংকারসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র ছিনতাই করে নেওয়া এবং এলাকায় নতুন বাড়ি নির্মাণ করার ক্ষেত্রে মালিকদের কাছ থেকে চাঁদাবাজিরও অভিযোগও রয়েছে।

ঢাকা মালিবাগ থেকে ঘুরতে আসা পর্যটক মো. মনির জানান, সোনারগাঁ পানাম নগরীতে তারা স্বামী-স্ত্রী বসে গল্প করছিলেন এমন সময় মাদক কারবারি অস্ত্রের মুখে তাদের জিম্মি করে মোবাইল ও স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নিয়ে চলে যায়।

এসব মাদক কারবারি ও ব্যবসায়ীরা সোনারগাঁয়ের ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের টিপরদী এলাকায় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে দূরপাল্লার যাত্রীদের সর্বস্ব লুট করে থাকে।

গত কয়েক বছর ধরে সোনারগাঁ পৌরসভার মাদক কারবারিরা পুলিশের সোর্স ও অসাধু পুলিশ সদস্যদের সাথে আঁতাত করে পার্শ্ববর্তী ইউনিয়ন থেকে উশৃঙ্খল লোকবল এনে ২০/৩০ জনের সংঘবদ্ধ হয়ে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করছে। যার ফলে পৌরএলাকার নিরীহ বাসিন্দারা অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে পৌর এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানান, রাজনৈতিক নেতাদের ইন্ধন ও দল ভারী করতে এবং প্রভাব খাটাতেই এই সংঘবদ্ধ মাদক কারবারি চক্রটিকে বিভিন্ন দলের নেতারা ব্যবহার করছেন। যার ফলে অভিযোগ পাওয়ার পরেও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নিতে পারছে না।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সোনারগাঁ জাদুঘর মেইন গেইট সংলগ্ন পানামা টুরিস্ট পার্ক এন্ড রেস্টুরেন্ট নামে একটি আবাসিক হোটেল মাদক কারবারি ও সংঘবদ্ধ চক্রের আখড়ায় পরিণত হয়েছে এবং সোনারগাঁ পৌরভবন সংলগ্ন পৌর মার্কেটে ‘শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ, নামে একটি সংগঠনের নাম ব্যবহার ও আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করে সংগঠনের সদস্যরা এলাকায় চাঁদাবাজি ও মাদক ব্যবসা করে এলাকায় অরাজকতা সৃষ্টি করছে।

জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সাজিদ আহম্মেদ নামে এক সিমেন্ট ব্যবসায়ীকে সোনারগাঁ জাদুঘর দুই নাম্বার গেইটে কয়েক হাজার পর্যটকের সামনে পথরোধ করে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে নগদ টাকা, স্বর্ণের চেইন ও মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পৌর এলাকার মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার পৌরসভার ইছাপাড়া এলাকার আহত সাজিদের পিতা আবু সাঈদ বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে এবং আরও ৪/৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

সোনারগাঁ পৌরসভার সংঘবদ্ধ সন্ত্রাস, মাদক ব্যবসায়ী, বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চক্রের মূল হোতা ও মামলার আসামিরা হলেন-সোনারগাঁ পৌরসভার খাসনগর দিঘিরপাড় এলাকার আক্কাস আলীর ছেলে মো. সুজন (৩০), টিপুরদী এলাকার তোতা মিয়ার ছেলে মো .আলমগীর (২৮), গোয়ালদী এলাকার শহিদুল্লাহর ছেলে মো. জীবন (২৪), ছাপেরবন্দ এলাকার সামছুদ্দিনের ছেলে মো. তালহা (৪০), মাইনকা ভিটা এলাকার আকবর আলীর ছেলে মো. মিজান (৩০) ও খাস নগর দিঘিরপাড় এলাকার আ. জব্বারের ছেলে মো. শান্ত (২৭)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ৪ মে দুপুরে সোনারগাঁ পৌরসভা ইছাপাড়া এলাকার আবু সাঈদের ছেলে সিমেন্ট ব্যবসায়ী সাজিদ আহম্মেদ ব্যবসায়িক টাকা নিয়ে বাড়িতে ফেরার সময় সোনারগাঁ জাদুঘর ২ নম্বর গেইট সংলগ্ন এলাকায় পৌঁছালে উল্লেখিত আসামিরা পথরোধ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মকভাবে রক্তাক্ত জখম করে। এসময় হামলাকারীরা সাজিদ আহম্মেদের কাছে থাকা ৬০ হাজার টাকা, একটি স্বর্ণের চেইন ও দুটি মোবাইল ফোন সেট ছিনিয়ে নিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন ও তার স্বজনরা আহত সাজিদ আহম্মেদকে উদ্ধার করে প্রথমে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

এ ব্যাপারে আহত সাজিদ আহম্মেদের পিতা আবু সাঈদ বলেন, আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যেই এলাকার সন্ত্রাসীরা কুপিয়েছে। দ্রুত এদের গ্রেফতার করে এবং আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তির দাবি করছি।

সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, আসামিদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে। দ্রুত তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

ওডি/ওএইচ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড