• বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বাস-মাইক্রোবাস সংঘর্ষ: নিহত ৩ জনের বাড়ি দেশের ভিন্ন ৩ প্রান্তে

  তন্ময় কুমার সাহা, রায়পুরা(নরসিংদী)

১৭ মার্চ ২০২২, ১৯:৫১
মাইক্রোবাস
দুর্ঘটনায় কবলিত মাইক্রোবাস (ছবি : অধিকার)

নরসিংদীর রায়পুরায় বাস-মাইক্রোবাস মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ নিহত হওয়া তিনজনের পরিচয় জানা গেছে। বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) ভোর ৪ টার দিকে উপজেলার ভিটি মরজালে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহতরা হলেন- মাইক্রোবাসটির চালক পাবনার আমিনপুর উপজেলার গোবিন্দপুর এলাকার মৃত মুজিবুর রহমান প্রামাণিকের ছেলে আবুল কালাম আজাদ (৫০), তার সহকারী পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার বতোলা এলাকার মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে ইউনুছ (৫৫) ও যাত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার নরহা এলাকার মৃত আবুল কাশেমের ছেলে আবুল হোসেন (৫০)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভোরে সিলেট থেকে ছেড়ে আসা ইউনিক পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো-ব-১৫-২৪১৭) একটি বাস ও সিলেটগামী সংবাদপত্রবাহী মাইক্রোবাসটি (ঢাকা মেট্রো-চ-১১-৮৫৯৭) ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভিটিমরজালে পৌঁছালে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মাইক্রোবাসটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলে মাইক্রোবাসের চালক আজাদ, তার সহকারী ইউনুছ ও যাত্রী আবুল মারা যান। পরে স্থানীয়রা ভৈরব হাইওয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে নিহত তিনজনসহ বাস ও মাইক্রোবাসটি জব্দ করে থানায় নিয়ে আসেন। ওই ঘটনার পর ইউনিক পরিবহনের চালক ও সহকারী পালিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

নিহত চালক আজাদের ভাগ্নে রবিউল ইসলাম জানান, তার মামা ছিলেন পরিবারে একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। দুই সন্তানের মধ্যে এক মেয়ে এবার ভার্সিটি পরীক্ষা দিবে এবং এক ছেলে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে। তার এমন মৃত্যু কিছুতেই স্বজনরা মেনে নিতে পারছেন না। সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষে মামার লাশ নিয়ে পাবনার গোবিন্দপুরে উদ্দেশে রওনা দিবেন বলে জানান তিনি।

নিহত আবুলের ভাই মো. মিজানুর রহমান জানান, ঢাকার বংশালে ব্যাগের ব্যবসা করতেন আবুল। তার গ্রামের বাড়ির ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নরহায় হলেও স্ত্রী ও দুই সন্তান সিলেটে বসবাস করত। সেই সুবাধে তিনি পূর্বপরিচিত চালক আজাদের সঙ্গে মাইক্রোবাসে করে সিলেটে পরিবারের কাছে যাচ্ছিলেন। মাইক্রোবাসটি নরসিংদীর ভিটিমরজালে পৌঁছালে দুর্ঘটনায় আবুলের মৃত্যু হয়।

তিনি আরও বলেন, মরদেহটি বিনা ময়না তদন্তে দাফনের জন্য নরসিংদী অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছ আবেদন করেছি।

ভৈরব হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খালেদ মাহমুদ খান জানান, নিহত তিনজনের স্বজনদের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিনা ময়না তদন্তে লাশ হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে। এ ঘটনায় বাসটি জব্দ করা হয়েছে। বাসের চালক ও সহকারী ঘটনার পর থেকেই পলাতক আছেন বলে জানান তিনি।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড