• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ময়লার গা‌ড়ি‌তে মুক্তিযোদ্ধার মরদেহ!

  শা‌কিল মুরাদ, শেরপুর

২৯ জানুয়ারি ২০২২, ১০:০৫
ছবি : দৈনিক অধিকার

শেরপু‌রে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক তালাপতুফ হোসেন মঞ্জুর মরদেহ পৌরসভার বর্জ্য ফেলার গাড়িতে কবরস্থানে নিয়ে দাফন করা হয়েছে। দাফ‌নের পর এক‌টি ছ‌বি সামা‌জিক যোগা‌যোগ মাধ‌্যমে ভাইরাল হ‌লে তোলপার শুরু হয় জেলা জু‌ড়ে। এতে চরম ক্ষোভ ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জেলার বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ স্থানীয়রা।

জানা গে‌ছে, বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) শেরপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তালাপতুফ হোসেন মঞ্জু। এরপর দুই দফায় তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও শেরপুর পৌর পার্কে। জানাজা শেষে মুক্তিযোদ্ধা মঞ্জুর মরদেহ দাফনের জন্য পৌরসভার বর্জ্য ফেলার গাড়িতে করে শেরপুর পৌর কবরস্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। দাফ‌নের প‌রে কে বা কাহারা নি‌য়ে যাওয়ার এক‌টি ছ‌বি সামা‌জিক যোগা‌যোগ মাধ‌্যম ফেসবু‌কে পোস্ট ক‌রে। এতে মুহু‌র্তেই ছ‌ড়ি‌য়ে প‌ড়ে ফেসবু‌কে। আর তা‌তেই তোলপাড় শুরু হয় জেলা জু‌ড়ে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জেলা সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. আখতারুজ্জামান বলেন, বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ শোনার পর শেরপুরে যে ১২ জন মুক্তিযোদ্ধা প্রথম হাতে অস্ত্র তুলে নিয়েছিলেন তাদের মধ্যে মঞ্জু অন্যতম। মঞ্জুর ভাই শহীদ বুলবুল ও মুক্তিযুদ্ধে পাক বাহিনীর সঙ্গে সন্মুখযুদ্ধে অংশগ্রহণ করে শহিদ হন। বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুর পর আওয়ামী লীগের দুর্দিনে রাজপথে সংগ্রাম করেছেন এই মঞ্জু। আজ বুক ফেটে যায়, হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়। একজন মুক্তিযোদ্ধা হয়েও শেষ বিদায়বেলায় তাকে ময়লার গাড়িতে করে কবরস্থানে আসতে হলো।

জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার নুরুল ইসলাম হিরো বলেন, যে কোনো মরদেহ পৌরসভার আবর্জনা ফেলার গাড়িতে বহন করলেও আমরা লজ্জা পাই। একজন মুক্তিযোদ্ধার মরদেহও ময়লার গাড়িতে করে যাবে, এটা আমাদের জন্য কষ্টের।

নাগরিক সংগঠন জনউদ্যোগের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে সশরীরে বীর মুক্তিযোদ্ধা তালাপতুফ হোসেন মঞ্জুর জানাজায় গিয়েছিলাম। উনার দাফন পর্যন্ত সেখানেই ছিলাম। তবে সাধারণ নাগরিকের মতো একজন মুক্তিযোদ্ধার মরদেহও পৌরসভার ময়লার গাড়িতে আসল, সেটা মানতে কষ্ট হচ্ছে।

শেরপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন বলেন, মরদেহ বহনকারী গাড়ি কেনার জন্য এখন পর্যন্ত পৌর তহবিলে ২২ লাখ টাকা জমা হয়েছে। আমরা আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যে এই সমস্যার সমাধান হবে।

উল্লেখ্য, বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা মঞ্জু শুধু একজন মুক্তিযোদ্ধাই ছিলেন না, তিনি শেরপুর কলেজ ছাত্রলীগের দুই দফায় নির্বাচিত জিএস ছিলেন। ব্যক্তি জীবনে মঞ্জু আওয়ামী লীগের কর্মী ছিলেন। তিনি যুবলীগেরও নেতৃত্ব দিয়েছেন।

ওডি/এমএ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড