• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

তৈমূরের বাড়িতে মিষ্টি নিয়ে আইভী

  তুষার আহমেদ, নারায়ণগঞ্জ

১৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৯:৪৬
কুশল বিনিময়ের পর পরস্পর মিষ্টিমুখ করেন (ছবি : অধিকার)

নির্বাচনি মাঠে বাগযুদ্ধের স্ফুলিঙ্গ ঝরলেও ফলাফল ঘোষণার পর পাল্টে গেছে চিত্র। চলমান বাগ ও ভোটযুদ্ধ সমাপ্ত হয়েছে গত রবিবার।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) বিরোধ ছাপিয়ে প্রকাশ পেয়েছে সৌহার্দ্যতা। ভোটের মাঠে বড় ব্যবধানে জয়ের পর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী তৈমূর আলম খন্দকারের বাড়িতে মিষ্টি নিয়ে হাজির হয়েছেন ডা. সেলিনা হায়াত আইভী। একে ওপরকে করিয়েছেন মিষ্টিমুখ।

ভোটের মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বী হলেও পারিবারিকভাবে যে পরস্পর চাচা-ভাতিজি, তা ফুটে উঠল এই সৌহার্দ্যতায়। শুধু কি তাই, রাজনৈতিক সৌহার্দ্যের বিরল দৃষ্টান্ত দেখা গেল আরও একবার।

জানা গেছে, ২০১৬ সালের দ্বিতীয় সিটি নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেনকে পরাজিত করার পর তার বাসাতেও মিষ্টি নিয়ে গিয়েছিলেন জয়ী মেয়র আইভী। তৃতীয়বারও আইভী দেখালেন একই উদারতা।

সচেতন মহল বলছেন, আইভী পাহাড়সম জনপ্রিয়তার টোটকা তো এখানেই!

জানা গেছে, সোমবার বিকাল ৫টার দিকে মাসদাইরে অবস্থিত চাচা তৈমূর আলম খন্দকারের বাড়িতে মিষ্টি নিয়ে উপস্থিত হন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী এবং জেলা আ. লীগ নেতা আদিনাথ বশু। বাড়ির নিচতলা থেকে তাদের স্বাগত জানিয়ে ঘরে নিয়ে যান তৈমূর এবং তার পরিবার। কুশল বিনিময়ের পর পরস্পর মিষ্টিমুখ করেন।

এ সময় সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন আইভী ও তৈমূর। তৈমূর বলেন, সিটি করপোরেশন এবং আলী আহমদ চুনকা পাঠাগারের প্রথম প্রস্তাবকারী আমি। আমার সাথে এই পরিবারের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। আইভীর বাবা চুনকা ভাই আমার মাকে মা ডাকতো। আমি তাকে ভাই বলে ডাকতাম। এগুলো মানুষ জানে। আইভীর সাথে আমার চাচা-ভাতিজির সম্পর্ক। বাদানুবাদ যা হয়েছে তা রাজনৈতিক ও নির্বাচনি মাঠে হয়েছে। পারিবারিক সম্পর্কের জায়গাটা ভিন্ন।

আরও পড়ুন : জামায়াত নেতার ছেলে কৃষকলীগের সভাপতি!

নবনির্বাচিত মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী বলেন, রাজনীতির জায়গায় রাজনীতি আর পারিবারিক সম্পর্কটা অন্য জায়গায়। এই সম্পর্ক কখনো শেষ হবে না। তিনি আমার চাচা, তিনি আজীবন সেই সম্মানের জায়গাতেই থাকবেন। আমি সবাইকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জবাসীর পাশে থাকতে চাই।

ওডি/এএম

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড