• রোববার, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ৯ মাঘ ১৪২৮  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বাড়তি সুবিধা পাইনি : আইভী

  তুষার আহমেদ, নারায়ণগঞ্জ

১৪ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:২৩
সেলিনা হায়াত আইভী
সেলিনা হায়াত আইভী। ছবি : অধিকার

নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে সরকার দলীয় প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াত আইভী বলেছেন, ‘সরকারদলীয় প্রার্থী হিসেবে আমি কখনই বাড়তি সুবিধা পাইনি। বাড়তি সুবিধা নিতে আমি পছন্দ করি না। জনস্রোত যেহেতু আমার সাথে আছে, আমি কেন বাড়তি সুবিধা নিতে যাব? আমিতো জনবিচ্ছিন্ন কেউ না।’

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে শহরের দেওভোগ এলাকায় নির্বাচনি প্রচারণায় নেমে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

নৌকার আলোচিত এই প্রার্থী বলেন, ‘প্রশাসন কখনই আমার হাতের মুঠোয় ছিল না। আমি প্রশাসনকে হাতের মুঠোয় নেওয়ার চেষ্টাও করিনি। আমি সবসময় মানুষের দোরগোড়ায় গিয়েছি। আমি আমার জনগণকে কাছে রাখার চেষ্টা করেছি। নট প্রশাসন।’

নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকারের অভিযোগ প্রসঙ্গে আইভী বলেন, ‘আমি জানি না, কাকে কোথায় ধরা হয়েছে। আমি একজনেরটা জানি, যিনি বিএনপি নেতা ছিল। তার নামে নাকি হেফাজতের মামলা ছিল। আর কাকে ধরেছে, কি হচ্ছে সেটা আমি জানি না। এটা আমার জানার ব্যাপারও না। এটা প্রশাসন দেখবে। শহরে যদি বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়, সেটা দেখভাল করবে প্রশাসন। আমি সারাদিন ব্যস্ত আমার প্রচারণা নিয়ে। আমি কোন সহিংসতার সাথে জড়িত না। কাউকে কোনদিন বলিও নাই যে, এটা ধরেন বা ওইটা করেন।’

প্রশাসন সতর্ক এবং সচেতন রয়েছে বলে দাবি করে আইভী বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যদি অবনতির দিকে যায়, তাহলেতো প্রশাসন আছে। নিশ্চয়ই তারা দেখবে। আমার জনগণের কাছে যেতে হবে, জনতার ভোটই চাইতে হবে। যদি কোনো সমস্যা হয়, সেটা আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দেখবে। এখানে যৌথভাবে প্রশাসন কাজ করছে। এটা দেখার দায়িত্ব তাদের। প্রত্যেক ইলেকশনের আগে একটু সমস্যা হতেই পারে। এ জন্য আমি মনে করি, প্রশাসন অনেক সচেতন এবং তারা এগুলো দেখভাল করবে।’

আরও পড়ুন : নাসিক নির্বাচন : ফ্যাক্টর সাধারণ ভোটাররা

কখনো মিথ্যার আশ্রয় নেন না দাবি করে আইভী বলেন, ‘আমি আমার সততা দিয়ে ঈমানের সহিত দলের কর্মী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে এই নারায়ণগঞ্জবাসীর সেবা করেছি। নতুন ভোটাররা এগুলো পছন্দ করেন। কারণ আমি পরিষ্কার ও স্বচ্ছভাবে কথা বলি। কখনো মিথ্যার আশ্রয় নেই না।’

সুষ্ঠু নির্বাচন কামনা করে আইভী বলেন, ‘আমি চাই ভোটকেন্দ্র যেন পরিষ্কার থাকে। কোনো সন্ত্রাসী যেন সেখানে ঝামেলা করতে না পারে। আমার ভোটাররা যেন ঠিকমতো ভোট দিতে পারে। আমি জয়ের বিষয়ে একশত পার্সেন্ট আশাবাদী। নৌকার জোয়ার উঠেছে। মানুষ নৌকাকেই ভোট দিবে। মানুষ কিন্তু সিদ্ধান্ত নিয়ে নিয়েছে। যে কাকে তারা ভোট দেবে।’

তিনি বলেন, ‘আমি আমার ভোটারদের বলব- উৎসবমুখর পরিবেশে তারা ভোট দিতে যাবে। নারায়ণগঞ্জে এর আগেও তিনটি নির্বাচন হয়েছে। একটি পৌরসভা এবং দুটি সিটি নির্বাচন। সেখানেও টানটান উত্তেজনা ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সকলেই ভোট দিতে গিয়েছে। পরিবেশ খুবই সুন্দর ছিল। আমার আনুরোধ থাকবে আগামী নির্বাচনেও যেন পরিবেশ আগের মতো সুন্দর থাকে। মানুষ যেন ভোট দিতে পারে।

ওডি/নিলয়

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড