• বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভৈরবে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে সংঘর্ষ, ৫ দোকানে অগ্নিকাণ্ড

  নাজির আহমেদ, ভৈরব

১৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৩:১৯
ভৈরব
অগ্নিকাণ্ড (ছবি : অধিকার)

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ ১৫ জন আহত হয়েছে। বুধবার (১২ জানুয়ারি) বিকাল ৪টা থেকে পৌর শহরের ভৈরবপুর মনামারা সেতু সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের সময় প্রতিপক্ষরা ৫টি দোকানে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে এবং ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা একঘণ্টা চেষ্টা করে আগুন নেভাতে সক্ষম হয়।

আহতরা হলো- ভৈরবপুর দক্ষিণ পাড়ার জাহিদ হাসান (২০), মধ্যপাড়া বশির (৩৩), উত্তর পাড়ার পিয়াস (৩০), নাছির (৩৫) মধ্যপাড়া সজিব (৩৮) ও সিয়াম (১৬)। আহতদের মধ্যে সিয়ামকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এলাকাবাসীরা জানায়, জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে ভৈরবপুর উত্তরপাড়া এলাকার ছাবের আলী হাজির বাড়ি ও ভৈরবপুর দক্ষিণপাড়া এলাকার কসাই হাটি মামুন বাচ্চু মিয়া ও হুমায়ুন এবং মানিক ছাবর আলী হাজী বাড়ির একজনকে জোরপূর্বক উঠিয়ে আনাকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষ শুরু হয়। এ খবর উভয় এলাকায় ছড়িয়ে পরলে শুরু হয় উভয়পক্ষের মাঝে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া। এ সময় এক পক্ষ অপর পক্ষের দোকান ভাঙচুরসহ অগ্নিসংযোগ করে।

আরও পড়ুন : ৮০ বছরেও বয়স্কভাতা পান না হতদরিদ্র লোকমান-নবিরন দম্পতি

এ ব্যাপারে ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. গোলাম মোস্তফা (পিপিএম) জানান, বুধবার সকালেও দুপক্ষের মাঝে কথাকাটাকাটি হয় এবং একজনকে ডেকে নিয়ে মারধর করে। পরে সন্ধ্যায় দুইপক্ষ মুখোমুখি হয়। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। তবে এ সংঘর্ষে উভয়পক্ষেরই কয়েকজন আহত হয়েছে।

ওডি/এফই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড