• শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কাল নানিয়ারচরবাসীর স্বপ্নের সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

  এম.কামাল উদ্দিন, রাঙামাটি

১১ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:০৮
নানিয়ারচরবাসীর স্বপ্নের সেতু কাল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
সেতু । ছবি : অধিকার

রাঙামাটি জেলার নানিয়ারচরবাসীর স্বপ্নের সেতু ভিডিয়ো কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আগামী কাল বুধবার (১২ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় ভিডিয়ো কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে এই সেতুর উদ্বোধন করার কথা রয়েছে।

সেতুটি উদ্ধোধনকালে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর, রাঙামাটি সংসদ সদস্য জননেতা দীপঙ্কর তালুকদার এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুইপ্ররু চৌধুরী, সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন পদস্থ কর্মকর্তা, রাঙামাটির জেলা প্রশাসক, সড়ক বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, পুলিশ সুপারসহ ক্ষমতাসীন দলের নেতৃবৃন্দ, প্রিন্ট এবং ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সংবাদকর্মীগণ ও স্থানীয় প্রশাসনের লোকজন উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

গত ৮ জানুয়ারি থেকে ২০ ইজ্ঞিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্যাটালিয়ন ও ৩৪ ইজ্ঞিনিয়ার কনস্ট্রাকশন জমকালো সাজগোজে সাজাচ্ছে সেতুটিকে। সৌন্দর্য বর্ধনে কারুকার্য করাসহ ঝিলিক মিলিক লাইট ও রংঙ করা হচ্ছে। সেতুর দুইপাশ ছেয়ে গেছে রং বে-রংঙের ব্যানার ফেস্টুনে।

গত তিন দিন ধরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সদস্যরা সেতুর সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য কাজ করে যাচ্ছে। সেতুটিকে সাজানো হয়েছে নববধূর মতো। সেতুটির উদ্বোধনকে ঘিরে এখন উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে নানিয়ারচর জনতার মধ্যে। সেতু উদ্বোধনে খুশি পাহাড়ি বাঙালি সকলেই। নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রগতি চাকমা বলেন, নানিয়ারচর চেঙ্গি সেতু নির্মাণে প্রথমে প্রধানমন্ত্রী ও সেতু ও সড়ক যোগাযোগ মন্ত্রী ওবাইদুল কাদেরকে ধন্যবাদ জানাই।

পরে ধন্যবাদ জানাই পার্বত্য মন্ত্রী বীরবাহাদুর ও স্থানীয় সংসদ সদস্য দীপঙ্কর তালুকদাকে। তাই আমরা নানিয়ারচরবাসী অত্যন্ত খুশি ও আনন্দিত। বাকি ১৬ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণের দাবি করছি। এই সেতুটি রাঙামাটি সদর, খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালা, লংগদুও বাঘাইছড়ি উপজেলার লোকজন যাতায়াত করতে পারবে। তবে সেতুর সড়ক সংযোগ রাস্তাগুলো করতে হবে।

এই সব রাস্তা করতে সরকারের প্রতি আহবান জানাই। সেতুটি নির্মাণ হওয়াতে নানিয়ারচরবাসীর দীর্ঘ বছরের ভোগান্তি দূর হয়েছে। মানুষ সহজে যাতায়াতসহ সকল প্রকার পণ্য বহন করতে পারবে। সেতু নির্মাণের পাশাপাশি তিনি নানিয়ারচরে পর্যটন হোটেল মোটেল ও বিনোদন কেন্দ্র স্থাপনের জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান। তিনি দাবি করে বলেন, নানিয়ারচর চেঙ্গি সেতুটি শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফের নামে নাম করণের দাবি জানান।

নানিয়ারচর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক রিপন দাশ(৩০)ও নানিয়ারচর বাজার ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি আবদুর রহমান (৬০) বলেন, দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর জননেত্রী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ১২ জানুয়ারি সেতুটি উদ্বোধন করবেন। ইতি মধ্যে সেতু উদ্বোধনের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

তিনি বলেন, সেতুর সাথে যুক্ত লংগদু ১৮মাইল রাস্তাটি হলে সেতুর সফলতা বয়ে আনবে। সেতুটি হওয়াতে চলাচলের যাতায়াত, স্কুল কলেজ শিক্ষার্থীদের যাতায়াত, অসুস্থ রোগীর সেবা, আমাদের উৎপাদিত পণ্য সহজে দেশের বাহিরে নিয়ে যাওয়াসহ সকল প্রকার সুবিধা হয়েছে।

নানিয়ারচরের সাথে আরও তিনটি উপজেলার যোগাযোগ রয়েছে। এ তিনটি উপজেলা রাস্তাগুলো নির্মাণ করা হলে সেতুটির সফলতা বয়ে আনবে।

সড়ক বিভাগ ও সেনাবাহিনী সূত্রে জানা গেছে, সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু হয় ২০১৬ সালের নভেম্বর মাসে এবং সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ করা হয় ৩০ জুন ২০২১ সালে। বালুখালী-ঘুনধুম সীমান্ত সংযোগ সড়ক এবং বগাছড়ি-নানিয়ারচর- লংগদু সড়কের ১০ম কিলোমিটারে চেঙ্গি নদীর ওপর ৫০০ মিটার দীর্ঘ সেতুটির উদ্বোধন করা হবে। সেতু নির্মাণ এবং সেতুর জায়গা ও সড়কের জন্য জায়গা অধিগ্রহণসহ সর্বমোট ব্যয় করা হয়েছে ২২৫ কোটি টাকার মতো।

ওডি/এসএ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড