• মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮  |   ১৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ব্যবহারিক নম্বর না পাঠানোয় অকৃতকার্য হলো শিক্ষার্থীরা

  তরিকুল ইসলাম তরুন, কুষ্টিয়া

০৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৬:০৫
ব্যবহারিক পরীক্ষার খাতা
ব্যবহারিক পরীক্ষার খাতা (ছবি : সংগৃহীত)

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার আলাউদ্দিন আহমেদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভোকেশনাল শাখার বিল্ডিং মেইনটেনেন্স ট্রেডের প্রাকটিক্যাল নম্বর না পাঠানোয় ৪২ শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) অকৃতকার্য হওয়া শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আসলে তাদের সঙ্গে শিক্ষকরা অসদাচরণ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিভাবকরা জানান, আলাউদ্দিন আহমেদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভোকেশনাল শাখার বিল্ডিং মেইনটেনেন্স ট্রেড থেকে তাদের সন্তানরা এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। গত ১ ডিসেম্বর এসএসসির ফল প্রকাশের পর তারা ট্রেডের মোট ৪২ জন শিক্ষার্থীর সকলেই অকৃতকার্য হওয়ার বিষয়টি জানতে পারেন। প্রথমে তারা বিষয়টি বুঝে উঠতে না পারলেও পরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, বিদ্যালয়ের ভোকেশনাল শাখার অন্য দুটি ট্রেডের রেজাল্ট ভালো, শুধু একটি ট্রেডের সব শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়েছে।

পরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গিয়ে অনেকেই কান্নাকাটি করতে থাকেন এবং কেন এমন হয়েছে জানতে চাইলে বিল্ডিং ট্রেডের শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক ও রুমানা পারভীন তাদের সঙ্গে অসদাচরণ করেন।

আজিমুল বাকী নামের এক অভিভাবক বলেন, শিক্ষিকা রুমানা পারভীনের কাছে শিক্ষার্থী উর্মিলা খাতুন ও হিরা খাতুন কান্নাকাটি করতে থাকলে তিনি কটাক্ষ করে তাদের বলেন, ‘তাহলে তোরা কি এখন আত্মহত্যা করবি?’ আর শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক তাদের বলেন, ‘রেজাল্ট কেন আসেনি বিষয়টি জানাতে তিনি বাধ্য নন।’

অভিভাবকরা আরও জানান, শিক্ষকরা তাদের সন্তানদের প্রাকটিক্যাল (ব্যবহারিক) খাতা কারিগরি শিক্ষাবোর্ডে না পাঠানোর কারণেই তাদের সন্তানরা অকৃতকার্য হয়েছে। বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক তাদের নিকট থেকে আগামী বুধবার পর্যন্ত রেজাল্ট ঠিক করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন। তবে ঠিক না হলে অভিযুক্ত শিক্ষকদের বিরুদ্ধে তারা মামলা করবেন বলে জানান।

এ বিষয়ে আলাউদ্দিন আহমেদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আসাদ উদ্দিন জানান, তারা প্রাকটিক্যাল নম্বর মেইল করে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু যেকোনো জটিলতায় হয়তো তাদের কাছে পৌঁছেনি। তবে তারা প্রাকটিক্যালের হার্ড কপি জমা দিয়েছিলেন। কিন্তু কী কারণে এমন হয়েছে সেটা বুঝতে পারছেন না। ইতোমধ্যে তিনি ভোকেশনালের শিক্ষক হারুন অর রশিদকে বোর্ডে পাঠিয়েছিলেন, সেখান থেকে জানানো হয়েছে আগামী রবিবার মিটিংয়ের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। অন্য দুটি ট্রেডের রেজাল্ট নিয়ে কোনো সমস্যা হয়নি, শুধুমাত্র একটিতে কেন এমন হয়েছে- এ প্রশ্নের কোনো উত্তর দিতে পারেননি তিনি।

আরও পড়ুন : ছাত্রলীগের ১০ নেতাকর্মীর সাতদিনের জেল

এ বিষয়ে কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের সহকারী পরিচালক (পরীক্ষা) খাইরুল বাশার জানান, বিষয়টি নিয়ে ইতোমধ্যে বোর্ডের চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা হয়েছে। রবিবার বিষয়টি নিয়ে মিটিংয়ের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

ওডি/এএম

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড