• বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ৩ ভাদ্র ১৪২৯  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ফুটপাতে জমে উঠেছে শীতের পিঠা বিক্রি

  মাহবুবুর রহমান রানা, সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ)

০৬ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:৫৫
পিঠা বিক্রেতা
পিঠা বিক্রেতা (ছবি : অধিকার)

শীতের পিঠাপুলি বাঙালি সংস্কৃতির এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। শীতকালেই মূলত পিঠাপুলি খাওয়ার উৎসব। শীতের পিঠাপুলি গ্রামীণ প্রাচীন ঐতিহ্য। শীত মৌসুমে গ্রামের বউ-ঝিরা বিভিন্ন ধরনের পিঠা তৈরি করে থাকে। শীতের পিঠাগুলোর মধ্যে অন্যতম ভাপা পিঠা, এই পিঠা আবার তৈরি করা হয় কখনও ঝাল বা মিষ্টি উপকরণ দিয়ে। শীত আসার সাথে সাথেই শহর ও গ্রামের হাট-বাজারে বিভিন্ন রকমের পিঠা বিক্রি শুরু হয়। বিশেষ করে ভাপা পিঠা, তেলের পিঠা, চিতল পিঠা বিক্রি হয় সবচাইতে বেশি। এসব মুখরোচক পিঠার কদর রয়েছে দেশজুড়েই। শীত বাড়ার সাথে সাথে মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলার ফুটপাতের দোকানগুলোতে জমে উঠে শীতের পিঠা বিক্রি।

সরেজমিনে সাটুরিয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, ফুটপাতে ও বাজারের বিভিন্ন অলিগলিতে শুরু হয়েছে শীতের পিঠা-পুলি বিক্রি।ফুটপাতের এসব দোকানগুলোতে মূলত পাওয়া যায় চিতই পিঠা ও ভাপা পিঠা, তবে কোথাও কোথাও আবার তেলের পিঠাও বিক্রি করতে দেখা গেছে।

পিঠা বিক্রেতাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, এটা হলো তাদের সিজনাল ব্যবসা। তবে কেউ কেউ সারাবছরই বিক্রি করে থাকেন। মূলত প্রতিদিন বিকাল থেকে শুরু হয়ে রাত পর্যন্ত শীতের পিঠা বেচা-বিক্রি চলে। এসব দোকানগুলোতে মূলত সন্ধ্যার পর থেকেই পিঠা কিনতে ভিড় জমায় বিভিন্ন বয়স ও শ্রেণি-পেশার মানুষ।

দোকানে মূলত চিতই পিঠার সাথে রাখা হয় বিভিন্ন প্রকারের বাটা-ভর্তা। এর মধ্যে রয়েছে- সরিষা বাটা, ধনে পাতার ভর্তা, শুটকি মাছের ভর্তা, লাল মরিচ ভর্তা ইত্যাদি। পিঠা বিক্রেতাদের অধিকাংশই নিম্নবিত্ত পরিবারের পুরুষ বা মহিলা। তাদের কাছ থেকে জানা যায়, সারাদিন অন্যান্য কাজকর্ম শেষ করে বাড়তি আয়ের জন্য বিকালবেলা তারা এই পিঠাপুলি বিক্রি বেছে নিয়েছেন। প্রতিটি চিতই পিঠা বিক্রি হয় ৫ টাকায় এবং গুড়ের তৈরি ভাপা পিঠা বিক্রি হয় ১০ টাকায়। প্রতিদিন ১০ থেকে ১৫ কেজি চালের গুড়ো দিয়ে পিঠা তৈরি করে বিক্রি করা হয় বলে জানান তারা।

আরও পড়ুন : জামানত হারালেন নৌকার তিন মাঝি

জাহানারা বেগম নামের এক পিঠা বিক্রেতা বলেন, শীত বাড়তেই দোকানে কাজের চাপ বেড়ে গেছে। পিঠা বানানো থেকে শুরু করে সবকিছুই করতে হয় নিজেকে। ক্রেতাদের চাহিদা মেটাতে ব্যস্ত সময় পার করতে হয়। প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলে পিঠা বানানো ও বিক্রির কাজ।

ওডি/এএম

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড