• বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি ২০২২, ৬ মাঘ ১৪২৮  |   ২১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রূপগঞ্জে রাস্তার বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে

  সাইদুর রহমান, রূপগঞ্জ(নারায়ণগঞ্জ)

০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১৩:০৫
নারায়ণগঞ্জ
বেহাল সড়ক (ছবি : অধিকার)

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার এলজিইডির অধীনের প্রায় সবকয়টি সড়কেরই একই অবস্থা। বৃষ্টির দিনে কাঁদা-পানি, খানাখন্দ আর গর্তের ভোগান্তি। অন্য সময়ে কুয়াশার মতো ধুলোবালি আর ভাঙা-চোরা সড়কগুলো মরা খালে পরিণত হয়ে রয়েছে। শীতলক্ষ্যার পূর্বপাড়ের রূপসী কাঞ্চন সড়কের মেরামত কাজ চলমান থাকলেও পশ্চিমপাড়ের ডেমড়া কালীগঞ্জ সড়কের অধীনে মুশুরী থেকে কাঞ্চন ব্রিজ পর্যন্ত ৫ কিলোমিটার এবং একই সড়কের শিমুলিয়া বাজার থেকে দাউদপুর পর্যন্ত ৭ কিলোমিটার সড়ক জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে খানাখন্দ ও গর্তে। এতে স্থানীয় জনসাধারণের যাতায়াত ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, শীতলক্ষ্যার পশ্চিমপার দিয়ে রাজধানী ডেমরা হতে রূপগঞ্জ উপজেলার কায়েতপাড়া, রূপগঞ্জ সদর ও দাউদপুর ইউনিয়নের ওপর দিয়ে গড়া গাজীপুরের কালীগঞ্জ পর্যন্ত প্রায় ২৬ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য একটি সড়ক রয়েছে। স্থানীয়দের উপজেলা সদর, থানা পুলিশের সেবা, একমাত্র সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা সেবাসহ সরকারি বেসরকারি নানাসেবা নিতে একমাত্র সড়ক এটি। অথচ সড়কটি অনেক বছর ধরে সড়কটির বেহাল অবস্থা হলেও সংস্কারের উদ্যোগ নেয়নি কর্তৃপক্ষ। মালবাহী ভারী যান চলাচল করায় সড়কটির মুশুরী থেকে কাঞ্চন ব্রিজ পর্যন্ত ৫ কিলোমিটারে শতাধিক গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এসব গর্তে সামান্য বৃষ্টি হলেই জমে থাকে পানি আর কাঁদামাটি। তাই যানবাহন চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়ায় চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছেন এখানকার বাসিন্দারা। আবার শিমুলিয়া বাজার থেকে দাউদপুর পর্যন্ত পুরো রাস্তায় ড্রেনের মতো হয়ে চলাচল অনুপযোগী হয়ে গেছে। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন এ পথে চলাচলরত যানবাহন ও সাধারণ লোকজন। ভোগান্তির শেষ নেই রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হতে আসা রোগীদেরও।

সরেজমিন ঘুরে আরও দেখা যায়, এ সড়কের পাশ্ববর্তী কলকারখানা ও বালু মহালের মালামাল বহনের কাজে ব্যবহৃত ভারী যান ও সাধারণ যাত্রীবাহী যান চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে। মুশুরী ও ভক্তবাড়ি এলাকায় বালির ব্যবসায়ী অন্যদিকে দাউদপুর এলাকায় ইটভাটা মালিকরা ইছারমাথা নামীয় যান চালিয়ে রাস্তাকে অচল করে দেওয়ার অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা।

সূত্র জানায় এ সড়কের পাশে ১৫টি বৃহৎ শিল্পকারখানা ও আরও ২০টি ক্ষুদ্র কারখানাসহ ২টি বালু মহাল রয়েছে।

সরেজমিন ঘুরে আরও জানা যায়, সম্প্রতি ডেমরা কালীগঞ্জ সড়কের কাঞ্চন ব্রিজ থেকে দাউদপুর ইউনিয়ন পরিষদ পর্যন্ত উভয় পাশে ৩ ফুট করে প্রস্তুতকরণ কাজ চলছে। কিন্তু একই সড়কের ভিংরাব এলাকার ২ কিলোমিটার এলাকাজুরে এ রাস্তায় পার ধ্বসে পাশের পুকুরে ও ধানী জমিতে পড়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা আমিনুল হক ঝিনু ভুঁইয়া বলেন, সড়কগুলো মেরামত না করায় আমরা গতিহীন হয়ে পড়েছি। বারবার সাংবাদিকরা ছবি তুলে পত্রিকায় প্রকাশ করলেও দীর্ঘদিন যাবৎ প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না।

রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছালাউদ্দিন ভুঁইয়া দৈনিক অধিকারকে বলেন, সড়ক মেরামতের জন্য নিজস্ব অর্থায়নে ইট সুড়কী দিয়েছি। কিন্ত স্থায়ী সমাধান হয়নি। এ সড়কটি অতি দ্রুত সংস্কার করা জরুরী।

দাউদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর মাষ্টার দৈনিক অধিকারকে বলেন, এই এলাকার রাস্তা ঘাট হালকা যান চলাচলের জন্য নির্মাণ করলেও স্থানীয় ইটভাটা মালিকদের ইছার মাথা ও ইটাবহনকারী ট্রাক চলাচল করে রাস্তা ঘাট ভেঙ্গে দেয়। ফলে স্থায়ীভাবে সড়ক করতে বড় বরাদ্দ প্রয়োজন। ইতোমধ্যে কাজ চলমান থাকলেও রহস্যজনকভাবে ঠিকাদার কাজ বন্ধ রেখেছে। এতে স্থানীয় জনসাধারন ক্ষোভ প্রকাশ করে থাকেন। আমি বিব্রত হই।

এদিকে ঠিকাদার হাবিবুর রহমান হাবিব দৈনিক অধিকারকে বলেন, সড়কটি মেরামতে ইতোমধ্যে বরাদ্দ পেয়েছি। এর কাজ শুরু হয়েছিল। সড়ক প্রস্তুতকরন ও বিদ্যুত খুঁটি অপসারনের কাজের জন্য কাজ করতে পারিনি। তবে শীঘ্রই কাজ শুরু হবে।

আরও পড়ুন : লালমনিরহাটে এনজিও ফাউন্ডেশন দিবস পালিত

এ সব বিষয়ে এলজিইডি বিভাগের রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী জামাল উদ্দিন দৈনিক অধিকারকে বলেন, রূপসী-কাঞ্চন সড়কটি এশিয়ান ডেভেলবম্যান্ট সোসাইটির অর্থায়নে ৪ লেনে উন্নীতকরণের কাজ চলমান। শীতলক্ষ্যার পশ্চিমপাড় এলাকার ডেমরা-কালীগঞ্জ সড়কের পূর্বাচল উপশহর ৪ নম্বর সেক্টর পর্যন্ত সড়কের উভয়পাশে ৩ ফুট করে প্রশস্তকরণ কাজ দ্রুত শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

ওডি/এফই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.od[email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড