• বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮  |   ২১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ছাগল চুরি করে খাওয়ায় ডাক্তারদের বিরুদ্ধে মামলা

  মো. রুম্মান হাওলাদার, পিরোজপুর

০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৫৩
চা বিক্রেতার ছাগল চুরি করে ডাক্তারদের ভুরি ভোজের ঘটনায় মামলা
ছবি : অধিকার

পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলায় দরিদ্র সেই চা বিক্রেতার ছাগল চুরি করে ডাক্তারদের ভুরি ভোজের অভিযোগের ঘটনায় মামলা হয়েছে। এর আগে গত ২৪ নভেম্বর জাতীয় দৈনিক অধিকার 'ছাগল চুরি করে খেয়েছেন ডাক্তাররা, অভিযোগ চা বিক্রেতার' শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ করলে তা ভাইরাল হয়।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) ভুক্তভোগী ছাগল মালিক আব্দুল লায়েক ফরাজী বাদী হয়ে পিরোজপুর জেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চার কর্মচারী ও অজ্ঞাতনামা ১০-১২ জনকে আসামি করে মামলাটি করেন। মামলায় আসামি হিসেবে ওই হাসপাতালের কর্মচারী মো. শাহিন খান (৩২), মো. চমন খান (২৫), মো. পলাশ খান (৩৩) ও মো. বাশার শেখের (৪৫) নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ১৯ নভেম্বর লায়েক ফরাজীর ছাগলটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভেতর গেলে ওই কর্মচারীরাসহ কয়েকজন সেটি জবাই করেন। পরে ওই ছাগলের মাংস স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের রান্না ঘরে রান্না করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা মিলে ভুরি ভোজ করেন। এ বিষয়ে থানায় মামলার জন্য আবেদন করলে থানা তা এজাহারভুক্ত না করে মীমাংসার আশ্বাস দিয়ে কালক্ষেপণ করে। তাই তিনি বাধ্য হয়ে আদালতে মামলা করেছেন।

ভুক্তভোগী লায়েক ফরাজী বলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভেতর থেকে চুরি হয়ে যাওয়া ছাগলটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিচ্ছন্নতা কর্মী শেখ বাশারসহ চারজন আটক করে জবাই করেন। পরে ওই ছাগলের চামড়া স্থানীয় ঋষি (চামড়া ক্রেতা) বিশ্ব নাথের কাছ থেকে সোমবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে উদ্ধার করা হয়।

চামড়ার ক্রেতা জানান, ওই চামড়াটি হাসপাতালের সুইপার বাশার শেখ তাকে দিয়েছেন এবং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা ওই ছাগল দিয়ে ভুরি ভোজ করেছেন।

এ বিষয়ে থানায় মামলার জন্য আবেদন করলেও থানা তা এজাহার হিসেবে নেয়নি। আশা করি, আদালতে মামলার মাধ্যমে ন্যায় বিচার পাব।

তবে এ মামলার বিষয়ে বক্তব্য জানতে নাজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বশীল কারও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

নাজিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আশরাফুজ্জামান বলেন, আমরা আদালত থেকে এ ব্যাপারে কোনো কাগজপত্র পাইনি। ছাগলের মালিক একাধিক জায়গায় অভিযোগ করেছেন। পরে আমি তাকে থানায় ডেকেছিলাম। তিনি যখন থানায় অভিযোগ দিয়েছেন, তখন আমি ছিলাম না। তিনি আমাকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কথা বলে সমাধানের জন্য বলেছিলেন। তবে আমাকে কোনো মামলা করবেন বলে জানাননি।

ওডি/এসএ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড