• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইলিশ মনে করেই খাচ্ছেন সাধারণ মানুষ

  আবু সালেহ্ মুছা, শিবচর (মাদারীপুর)

২০ নভেম্বর ২০২১, ১২:৩৭
ইলিশ মনে করেই খাচ্ছেন সাধারণ মানুষ
সার্ডিন মাছ ভাজা । ছবি : অধিকার

রাজধানী ঢাকার সাথে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার যোগাযোগের অন্যতম নৌরুটের বাংলাবাজার এবং শিমুলিয়া ঘাটে রয়েছে অসংখ্য খাবার হোটেল, রেস্তোরা। গরম ভাতের সাথে ইলিশ ভাজা আর ইলিশের তেল ও শুকনা মরিচের স্বাদের সাথে এই নৌরুটে যাত্রীরা দীর্ঘদিনের পুরানো। তবে গত বেশ কয়েক বছর ধরে অসাধু ব্যবসায়ীদের ফাঁদে পরছেন যাত্রীরা। ইলিশের নামে সার্ডিন ও চৌক্কা মাছ খাওয়াচ্ছেন তারা। তবে দাম রাখছেন ইলিশের মতোই।

দামাদামি করে কিছুটা কমানো গেলেও ইলিশ মনে করেই খাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। তবে মুখে দেওয়ার পর ইলিশের স্বাদ না পেয়ে ধরতে পারছেন বিষয়টি। অনেকে প্রতারণা বুঝতে পেরে চুপচাপ খেয়ে চলে যাচ্ছেন। অনেকেই প্রতিবাদ করতে গিয়ে লাঞ্ছনার শিকার হচ্ছেন।

এদিকে হোটেল ব্যবসায়ীদের দাবি, তারা ইলিশও বিক্রি করেন। যারা প্রকৃত ইলিশ খেতে চায় তাদের ইলিশ মাছই দেওয়া হয়। ইলিশের চেয়ে সার্ডিন মাছের দাম কিছুটা কম। এখন অনেকেই এই মাছ চিনতে পারছে। তাই ঠকানোর প্রশ্নই আসে না।

হোটেলে একাধিক মানুষের সাথে আলাপ করলে তারা জানান, ঘাটের হোটেলে সাজিয়ে রাখা মাছগুলো দেখতে ইলিশের মতো হলেও তা ইলিশ নয়। মুখে দেবার পর বিষয়টি বোঝা যায়। এর আগে সহজে চেনা যায় না।

ঘাটের হোটেল মালিকদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে, বর্তমানে হোটেলগুলোতে চাঁটগাঁর ইলিশ নামে দামে সস্তা ইলিশ সদৃশ্য সার্ডিন মাছ বেশি পাওয়া যায়। তবে ইলিশের মতোন ততটা স্বাদ নয় এই ইলিশ। ৭০/৮০ টাকা করে পিচ বিক্রি হয়। সার্ডিন এবং ইলিশ দেখতে একই রকম তবে বেশিরভাগ ক্রেতারা এটা বুঝতে পারেন না। আবার কেহ কেহ সার্ডিন মাছ ধরে ফেলেন। সার্ডিনের দাম কম হওয়াতে আমাদের লাভ বেশি হয়।

ঘাটের এক হোটেল মালিক জানান, ভোর থেকে রাত পর্যন্ত দোকান খোলা থাকে। হোটেলে ভাত এবং খিচুড়ির সাথে ইলিশ মাছ বেশি বিক্রি হয়। হোটেলে আস্ত ইলিশও রাখা হয়। একাধিক ব্যক্তি একত্রে আসলে তারা কিনতে পারেন। ক্রেতাদের সামনেই মাছ কেটে ভেজে দেয়া হয়। সঙ্গে ইলিশের তেলে শুকনা মরিচ ভেজে দেয়া হয়। কয়েকযুগ ধরে এভাবেই চলছে ঘাট এলাকার হোটেল ব্যবসা। তবে ইদানিং নকল ইলিশের কারণে সুনাম নষ্ট হচ্ছে।

আরও পড়ুন : নতুন বছরের শুরুতে প্রাণের ক্যাম্পাসে ফিরবেন কুমেক শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

বিআইডব্লিউটিএর বাংলাবাজার ঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন জানান, লঞ্চ ঘাটেই হোটেলের সংখ্যা বেশি। এসকল হোটেলে ইলিশ মাছ বেশি বিক্রি করতে দেখা যায়। তবে আসল ইলিশের মাঝে নকল ইলিশের বেশ ছড়াছড়ি রয়েছে। বিশেষ করে লঞ্চযাত্রীরাই এ সকল খাবার হোটেলের কাস্টমার। তারা ইলিশের দামে ইলিশ ভেবে নকল ইলিশ খেয়ে প্রতারিত হচ্ছেন।

ওডি/এসএ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড