• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ৪ কার্তিক ১৪২৮  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রংপুরে বাড়ছে পেঁয়াজের ঝাঁজ, ঊর্ধ্বমুখী মুরগি-ডিমের দাম

  মাহফুজ আলম প্রিন্স, রংপুর

০৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩:১২
বাজারদর (ছবি : সংগৃহীত)

আবারও ঊর্ধ্বমুখী পেঁয়াজের দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে বেড়েছে কেজিতে ১৫ থেকে ২০ টাকা। বেড়েছে মুরগি ও ডিমের দামও।

শুক্রবার (৮ অক্টোবর) সকালে নগরীর সিটি বাজার, চকবাজার, টার্মিনাল কাঁচা বাজার ও সিও বাজার ঘুরে বাজারদরের এমন চিত্র দেখা গেছে।

পেঁয়াজের বাজার ঘুরে দেখা যায়, গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে কেজিতে ১৫ থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ কিনতে ক্রেতাদের গুনতে হচ্ছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা। আর ভারতীয় পেঁয়াজের জন্য কেজিপ্রতি ক্রেতাকে গুনতে হচ্ছে ৬০ থেকে ৬৫ টাকা। এদিকে কেজিতে দুই থেকে ৭ টাকা কমেছে আলুর দাম। ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়া আলু এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ১৮ টাকা কেজি দরে। ২০০ টাকার ঘর থেকে নেমে এ সপ্তাহে কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকায়।

সবজির বাজার

পেঁয়াজের দামের ঊর্ধ্বগতি থাকলেও এ সপ্তাহে কিছু টাকা সাশ্রয় হবে সবজির বাজারে। কেজিতে ৫ থেকে ১০ টাকা কমেছে অনেক সবজির। দাম কমে প্রতি কেজি করলা বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়, চিচিঙ্গা ৪০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, ঢেঁড়স ৬০ টাকা, লতি ও কাকরোল ৬০ টাকা, গোল বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়, লম্বা বেগুন ৬০ টাকা, ভারতীয় টমেটো ১৩০ থেকে ১৬০ টাকা, শিম ও বরবটি বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি দরে।

প্রতি পিস চাল কুমড়া মিলছে ৪০ টাকায়, আকার ভেদে লাউ কিনতে গুনতে হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা, আস্ত মিষ্টি কুমড়া মিলছে ৮০ টাকায়। ফালি বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকায়। আর কেজি দরে মিষ্টি কুমড়া বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা দরে। এছাড়া বাঁধাকপি বিক্রি করে ৪০ থেকে ৫০ টাকা পিস হিসেবে। একই দামে মিলছে ফুলকপিও। কাঁচা কলার হালি ৩০ টাকা, প্রতি কেজি পেঁপে ২০ টাকা, শসা ৫০ টাকা ও লেবুর হালি বিক্রি হচ্ছে ১৫ থেকে ২০ টাকা।

মশলার বাজার

মশলার বাজারে প্রতি কেজি রসুনের দাম ৮০ থেকে ১৩০ টাকা, দেশি আদা ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি, চায়না আদা ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা, হলুদ ১৬০ থেকে ২২০ টাকা এবং শুকনা মরিচ কিনতে ক্রেতাকে গুনতে হচ্ছে দেড়শো থেকে আড়াইশো টাকা পর্যন্ত।

মুদি বাজার

মুদি বাজারে ভারতীয় মুসুর ডাল বিক্রি হচ্ছে ৯০ টাকা কেজি দরে। আর দেশি ডাল বিক্রি হচ্ছে ১১০ থেকে ১২০ টাকা কেজি দরে। অপরিবর্তিত আছে ভোজ্য তেলের দাম। প্রতি লিটার সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৫০ টাকায়। কেজিতে ৫ টাকা বেড়ে প্রতি কেজি চিনি বিক্রি হচ্ছে ৮৫ টাকায়। প্যাকেটজাত চিনি বিক্রি হচ্ছে ৯০ টাকা দরে। আটা বিক্রি হচ্ছে ৩৫ টাকা কেজি দরে।

চালের বাজার

সপ্তাহের ব্যবধানে চালের দামে খুব একটা পরিবর্তন হয়নি। এ সপ্তাহে প্রতি কেজি মিনিকেট চাল বিক্রি হচ্ছে ৬৫ টাকা দরে, আটাশ চাল বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৫২ টাকা দরে। এছাড়া নাজিরশাইল চাল বিক্রি হচ্ছে ৬৮ থেকে ৭০ টাকা দরে।

মাংসের বাজার

গত শীতের পর থেকে লাগাতার বেড়ে চলেছে ব্রয়লার ও সোনালি মুরগির দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে ৫ টাকা বেড়ে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৭৫ টাকায়। আর সোনালি বা কক মুরগির ক্ষেত্রে কেজিতে বেড়েছে ২০ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত। বিক্রি হচ্ছে ৩১০ থেকে ৩২০ টাকা কেজি দরে। এছাড়া লেয়ার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৩০ টাকা কেজি দরে।

আরও পড়ুন : গিনেস বুকে নাম লেখাতে চায় শ্রীপুরের ‘টুনটুনি’

এ সপ্তাহে দাম বেড়েছে ডিমের। লাল ডিম প্রতি ডজনের পেছনে ক্রেতার খরচ ১১০ টাকা। আর হাঁসের ডিমের ডজন ১৬৫ টাকা।

ওডি/এএম

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড