• বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

হুইলচেয়ারই জীবনসঙ্গী, অদম্য ইচ্ছাশক্তিতেই শিক্ষকের গুরুদায়িত্বে তিনি

  শাহ্‌ মুহাম্মদ রুবেল, কক্সবাজার

০৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:১৫
শিক্ষক
হুইলচেয়ারে করে শ্রেণিকক্ষে শিক্ষক আমান উল্লাহ আমান। ছবি : সংগৃহীত

শারীরিক প্রতিবন্ধকতা যে কখনোই ইচ্ছাশক্তির পথে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে না তার সবচেয়ে বড় উদাহরণ হিসেবে ছিলেন স্মরণীয় বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিংস, অসামান্য লেখক হেলেন কেলার, সাঁতারু বুলা চক্রবর্তীরা। তবে এবার সেই তালিকায় যোগ হয়েছেন কক্সবাজারের আমান উল্লাহ আমান।

করোনা আবহে একদিকে যেমন বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে অনেক সামাজিক সম্পর্ক, দূরত্ব বাড়ছে মানুষে-মানুষে তেমনি অন্যদিকে এই অন্ধকারে আলোর পথ দেখাচ্ছেন অনেকেই। আবার কখনো সমস্ত প্রতিবন্ধকতাকে দূরে সরিয়ে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছেন কক্সবাজারের সীমান্তবর্তী উপজেলা টেকনাফের তরুণ শিক্ষক আমান উল্লাহ আমানের মতো মানুষ।

বলতে গেলে হুইলচেয়ারই তার জীবন। কিন্তু ৯০ শতাংশ প্রতিবন্ধকতাকে কাটিয়ে দিতে তার শতভাগ মনের জোর রয়েছে।

তরুণ এই শিক্ষকের শিক্ষকতার বয়স ৩ বছর। সবকিছু ঠিকঠাক চলছিল। তবে চলতি বছরের ৭ মার্চ আলোর পথ দেখানো এই শিক্ষকের জীবনে নেমে আসে এক বিভীষিকাময় অন্ধকার। কিছু উচ্ছৃঙ্খল, আইন-অমান্যকারী ও দুষ্কৃতিকারীর এলোপাতাড়ি কোপে হাত-পায়ে মারাত্মকভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হন আমান উল্লাহ। সাথে থাকা তার প্রিয় সহধর্মিণীও ওই দুষ্কৃতিকারীদের হাত থেকে রেহাই পাইনি। তাকেও লাঞ্ছিত করা হয়।

এরপরে তাদের ঠিকানা হয় ঢাকা পঙ্গু হাসপাতাল। মার্চ থেকে জুন এবং সর্বশেষ চলতি মাসের ২৮ তারিখসহ মোট তিনবার অস্ত্রোপচারের মুখোমুখি হতে হয় আলোর দিশারী এই শিক্ষককে। তবুও থেমে নেই তার জীবন।

বাড়িতে ফিরে সোজা প্রিয় কর্মস্থল কাটাবনিয়া ও কচুবনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রিয় শ্রেণিকক্ষে তিনি। এ সময় নিজে চলতে না পারলেও, হুইলচেয়ারই তাকে চলায়। প্রিয় মুখগুলো দেখার জন্য হাসপাতালের বেডে যেন ছটফট করছিলেন তিনি।

এরই মধ্যে হুইলচেয়ারে বসে আমান উল্লাহর পাঠদানের একটি ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। ছবিতে দেখা যায়, শিক্ষক আমান উল্লাহ আমান হুইলচেয়ারে বসে ক্লাস নিচ্ছেন। ঘটনাটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই সকলের প্রশংসায় ভাসছেন তিনি।

আরও পড়ুন : কক্সবাজারে প্রকল্পের কোটি কোটি টাকা হরিলুটের অভিযোগ

এ বিষয়ে আমান উল্লাহ আমান দৈনিক অধিকারকে বলেন, ‘ভাইরাল হওয়ার জন্য এই কাজ করিনি। দায়িত্ব আমাকে ছুটি দিলেও আমি দায়িত্বকে ছুটি দিতে পারি না।’

তিনি বলেন, আজ বিশ্ব শিক্ষক দিবস। শিক্ষকদের নিরাপদ জীবনযাপন নিশ্চিত করা হোক এবারের বিশ্ব শিক্ষক দিবসের কামনা।

এ দিকে, অন্ধকার ভেদ করে আলো ছিনিয়ে আনা এই শিক্ষকের হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন এলাকার শিক্ষিত সমাজ। প্রশাসনের সর্বোচ্চ মহলে এই বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখারও দাবি তাদের।

ওডি/নিলয়

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড