• সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

দৌলতপুরে সোনাইকুন্ডি আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর বসবাসের অযোগ্য

  আতিয়ার রহমান, দৌলতপুর (কুষ্টিয়া)

১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:১৭
আশ্রয়
আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরগুলি বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়েছে (ছবি : দৈনিক অধিকার)

দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সোনাইকুন্ডি আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরগুলি বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। জীর্ণ ও ভগ্নদশা ঘরে অতিকষ্টে বসবাস করছে ৩০টি অসহায় দরিদ্র ও ছিন্নমূল পরিবার।

জরাজীর্ণ এসব ঘর সংস্কারের দাবি জানিয়ে সংশ্লিষ্ট দফতরের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন বসবাসরত আশ্রয়ণ প্রকল্পের অসহায় মানুষগুলি।

জানা গেছে, উপজেলার হগোলবাড়ীয়া ইউনিয়নের সোনাইকুন্ডি মৌজায় ৩ একর ৫১ শতক সরকারী জমিতে ১৯৯১ সালে ৩টি লম্বা ১০ কক্ষ বিশিষ্ট টিনসেট ঘর, ৩টি পায়খানা নির্মাণ ও ৩টি টিউবওয়েল বসানো হয়। প্রতি ঘরে ১০জন করে মোট ৩০ জন ভূমিহীন ও দরিদ্র মানুষের বসবাসের ব্যবস্থা করে সে সময় বরাদ্দ দেওয়া হয়।

পাশাপাশি তাদের স্বাবলম্বী করার জন্য উপজেলা সমবায় অফিস থেকে ৩০ জনকে ঋণ ও মাছ চাষের জন্য একটি বড় পুকুর দেওয়া হয়। কিন্তু ঘরগুলি বরাদ্দের দুই যুগ হতে চললেও সংস্কারের অভাবে তা বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। ঘরের চালার টিনগুলি ছিদ্র হওয়ায় তা দিয়ে পানি পড়ে। টিউবওয়েল গুলোও অকেজো ও টয়লেট ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

এ ছাড়াও আশ্রয়ণের প্রকল্পের জমিও প্রভাবশালীদের দখলে চলে গেছে। আশ্রয়ণ প্রকল্পের লোকজন জমি দখলদারদের বিরুদ্ধে কিছু বলারও সাহস করেনা। সবদিক থেকে আশ্রয়ণ প্রকল্পের বসবাসরত অসহায় মানুষগুলি চরম কষ্টে মানবেতর জীবন যাপন করছে।

আরও পড়ুন : সোনারগাঁয়ে মসজিদের ছাদ ঢালাই কাজের উদ্বোধন

তবে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার ঘরগুলি সংস্কারের আশ্বাস দিয়েছেন।

ওডি/এসএ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড