• বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাসায়নিক ছিটিয়ে ধান নষ্টের অভিযোগ

  সাইফুল ইসলাম, ধামইরহাট (নওগাঁ)

১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:১৬
নওগাঁ
কৃষক আনিছার রহমান (ছবি : দৈনিক অধিকার)

নওগাঁর ধামইরহাটে প্রতিপক্ষের শত্রুতার বলি হলো কৃষক আনিছার রহমানের আড়াই বিঘা জমির ধান।

উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের বড়মোল্লা পাড়া (বীরগ্রাম) এলাকার কৃষক আনিছার রহমান ধামইরহাট থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযোগে তিনি বলেন, বীরগ্রাম মৌজায় তার পৈতৃকভাবে পাওয়া ক্রয়সূত্রে খরিদ করা ১.২৫ একর জমিতে অনেকদিন যাবৎ চাষাবাদ করে আসছিলেন। এমতাবস্থায় প্রতিপক্ষের লোকজন চলতি মাসের বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) তার জমিতে রাসায়নিক স্প্রে করে সমস্ত ধান নষ্ট করে দেয়।

ভুক্তভোগী আরও বলেন, আমার জমি নিয়ে আমার নিজ ছোট ভাই মো. আমিনুল ইসলাম অন্যান্য প্রতিপক্ষ আনোয়ার হোসেন, নাসির উদ্দিনসহ ৪/৫ জন দীর্ঘদিন ধরে শত্রুতা করে আসছে। বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় একজন জমিতে রাসায়নিক স্প্রে করতে দেখে আমাকে জানায়। এতে আমার প্রায় ১ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। আমি এ বিষয়ে ধামইরহাট থানায় ও মাননীয় সাংসদসহ স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে অবগত করেছি।

অভিযুক্ত প্রতিপক্ষ আমিনুল ইসলামের যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান- জমিটি আমারই, সেখানে আমিই ধান লোকজন দিয়ে লাগিয়েছি। আমার প্রতিপক্ষ জোর করে জমিতে ধান খোসা দিয়ে জবর দখলের চেষ্টা করেছিল। আমরা ২ ভাই ৭ বোন। বোনদের অংশ অভিযোগকারী আত্মমসাত করেছে। আমি কারও ধানে স্প্রে করিনি, বরং সেই আমার ধানে স্প্রে করেছে।

আরও পড়ুন : খাগড়াছড়িতে বাসদ নেতার মরদেহ উদ্ধার

ধামইরহাট থানার ওসি আবদুল মমিন জানান, আনিছার রহমান ধান স্প্রে করার অভিযোগ করলেও অপর পক্ষ আমিনুল ইসলাম থানায় এজাহার দাখিল করেছেন। প্রকৃত ঘটনা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ওডি/এফই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড