• বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মঠবাড়িয়ায় সড়ক দেবে ১০ ফুট গভীরে

  রুম্মান হাওলাদার, পিরোজপুর

১২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১২
পিরোজপুর
পাকা সড়ক দেবে গিয়েছে (ছবি : দৈনিক অধিকার)

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার (মঠবাড়িয়া -বড়মাছুয়া) ব্যস্ততম পাকা সড়কটি হঠাৎ সমতল থেকে প্রায় ১০ ফুট গভীরে দেবে গেছে। এতে উপজেলার সাথে বড়মাছুয়া ইউনিয়নের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। কালিরহাট বাজার সংলগ্ন দেবে যাওয়া এ সড়কের পাশেই রয়েছে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় একটি বৈদ্যুতিক খুঁটি। যেকোনো সময় এটিও ধ্বসে পড়ে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

স্থানীয়রা জানান, সড়কটি খাল সংলগ্ন হওয়ায় খালের বিপরীত পার্শ্বে রাস্তা অতিক্রম করে পানি ওঠা নামা করায় প্রথমে খাদ তৈরি হয়। সড়কটি ব্যস্ততম হওয়ায় এবং গুরুত্বপূর্ণ যানবাহন চলাচল করায় ওই স্থানটি হঠাৎ ধ্বসে পড়ে। তবে এতে হতাহতের কোন ঘটনা ঘটেনি।

সড়কটির সাথে বড়মাছুয়া স্টিমারঘাট সংযুক্ত রয়েছে। বড়মাছুয়া হাই ইনস্টিটিউটসহ একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনেক শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা এ সড়কটি দিয়ে যাতায়াত করেন। আইন শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে থানা পুলিশ দিন রাত টহল দিয়ে থাকেন। কর্তৃপক্ষের অবহেলায় সড়কটি এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে বলে অভিযোগ ভুক্তভোগী এলাকাবাসী ও যাত্রীদের।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন জানান, সড়কটির ধ্বসে পড়া স্থানটি দ্রুত মেরামত করা না হলে স্টিমারযোগে বড়মাছুয়া ঘাটে নামা যাত্রীরা গন্তব্যে পৌঁছাতে দুর্ভোগ পোহাতে হবে। সড়কটি থেকে যোগাযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

আরও পড়ুন : যাতায়াতের রাস্তা না থাকায় ভোগান্তিতে শিক্ষার্থীরা

সড়ক ও জনপদ বিভাগ পিরোজপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদ মাহমুদ সুমন জানান, সড়কটি চলাচলের উপযোগী করার জন্য দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

ওডি/এফই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড