• বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৮  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কালিয়াকৈরের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলায় অনিশ্চয়তা

  মো. আফসার খাঁন বিপুল, কালিয়াকৈর, গাজীপুর

০৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৪৩
স্কুল
স্কুলের চারপাশে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। ছবি : দৈনিক অধিকার

সরকার ঘোষিত তারিখ ১২ সেপ্টেম্বর অনুযায়ী দেশের সব স্কুলগুলো একযোগে খোলার সিদ্ধান্তের অংশ হিসেবে গাজীপুরের কালিয়াকৈর স্কুলগুলো নতুন করে প্রস্তুত করা হচ্ছে। তবে অনেক স্কুল এখনোও নোংরা ও অগোছালো অবস্থায় দেখা গেছে। অপরদিকে বন্যার পানি স্কুলে প্রবেশ করায় ও রাস্তা-ঘাট তলিয়ে যাওয়ায় কালিয়াকৈরের ১৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার সিদ্ধান্ত নিতে হিমশিম খাচ্ছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

স্কুলগুলো পরিদর্শনে গেলে দেখা যায়, কালিয়াকৈর উপজেলা ও পৌরসভা মিলে ১২২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৫২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৮ স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ৫টি কলেজ এবং ৮টি মাদরাসা রয়েছে। এরমধ্যে ১৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চারপাশে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। এ ছাড়া আরও কয়েকটি মাধ্যমিক স্কুলের একই অবস্থা। এসব স্কুলের কোথাও কোথাও রাস্তায় উঠেছে বন্যার পানি। এতে বিপাকে পড়ছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। আবার অনেক স্কুল এখনো অপরিচ্ছন্ন রয়েছে। এসব স্কুল পরিপাটি করতে রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

এ দিকে, বন্যার পানির কারণে ১৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত এখন নড়বড়ে। আবার অনেক স্কুলে নৌকাযোগে পারাপারের ব্যবস্থা করছে ওইসব স্কুলের শিক্ষকবৃন্দ। এতে ছাত্র-ছাত্রীদের জীবনের ঝুঁকি থেকেই যায়। তবে এতদিন পরে স্কুল খুলছে তাতেই আনন্দিত স্কুলপড়ুয়া ছোট্ট-ছোট্ট শিশু-কিশোররা।

একদিকে যেমন ছাত্র-ছাত্রীদের গলার কাটা হিসেবে ছিল করোনা, অপরদিকে নতুন সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে বন্যা। তাই স্বাস্থ্যবিধি মানার পাশাপাশি বন্যার হাত থেকে শিক্ষাকে বাঁচানোর দাবি জানিয়েছে সচেতন মহল।

স্কুলপড়ুয়া শিক্ষার্থী গুপামনি পাল, তৌসিকুল রহমান রাসেল ও মেহেরজাবীন নাহার আহনা বলছে, দেরি হলেও স্কুল খুলছে শুনে আমাদের অনেক আনন্দ লাগছে। আমরা এতদিন ঘরে বন্দি ছিলাম। সময় কাটাতে হতো মোবাইলে গেমস খেলে। অনলাইনে ক্লাস করতে ভালো লাগতো না। এখন আমরা আগের মতো স্কুলে এসে সবাই একসাথে ক্লাস করব, পড়ালেখা করব, কবিতা আবৃত্তি করব, জাতীয় সংগীত গাইব, খেলাধুলা করব- খুব মজা হবে।

এ দিকে, স্কুল খোলার বিষয়ে ৫১ নম্বর টান সূত্রাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হাসিনা মমতাজ দৈনিক অধিকারকে বলেন, গত মাসের ২৪ তারিখ থেকে আমরা স্কুলে আসছি। এ ছাড়া আমরা আমাদের দফতরিদের দিয়ে জীবাণুনাশক স্যাভলন ব্যবহার করে স্কুলের বেঞ্চ-চেয়ার-টেবিলসহ সকল আসবাবপত্র পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করছি। আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ সরকারের সকল বিধিনিষেধ মেনে স্কুলগুলো পড়ালেখার উপযোগী করে তুলছি।

আড়াইগঞ্জ আজিম হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম দৈনিক অধিকারকে জানান, আমাদের স্কুলের মাঠে পানি এসেছে। তবে ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস করাতে আমাদের সমস্যা হবে না। আমাদের হাতে আরও দুই-তিন দিন সময় আছে। এতে আমাদের নোংরা ও অপরিষ্কার রুমগুলো আমরা পরিষ্কার করে ফেলব।

এ দিকে, উপজেলা শিক্ষা অফিসার রমিতা ইসলাম বলেন, ১২২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে এবারে বন্যার কারণে ১৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ থাকবে। বাকি স্কুলগুলো সরকারি নিয়ম মেনে চলমান থাকবে। স্কুলে ক্লাস করতে আমাদের সকল প্রস্তুতি চলমান আছে।

আরও পড়ুন : এক যুগেও সংস্কার হয়নি সওজের রাস্তা

অন্যদিকে, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জাকির হোসেন মোল্লা দৈনিক অধিকারকে বলেন, আমাদের সকল উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে জীবাণুনাশক স্যাভলন দিয়ে বেঞ্চ-চেয়ার-টেবিলসহ সব আসবাবপত্র পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে। আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ সরকারের সকল বিধিনিষেধ মেনে স্কুলগুলো পড়ালেখার উপযোগী করা হচ্ছে। তবে কয়েকটি স্কুলে এখনো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়নি। শুক্রবারের মধ্যে সবগুলো পরিষ্কার করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

ওডি/আইএইচএন

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড