• রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যা মামলায় চার্জশীট, নারাজি দিচ্ছেন বাদী

  শেখ শান্ত, খুলনা

০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৩৬
খুলনা
নিহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শাহাদাত হোসেন মোল্যা (ছবি : সংগৃহীত)

খুলনায় বহুল আলোচিত চাঞ্চল্যকর, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব শাহাদাত হোসেন মোল্যা হত্যার ঘটনায় তদন্তকারী কর্মকর্তার দেয়া চার্জশীটের বিরুদ্ধে নারাজি পিটিশন দেবেন আজ মামলার বাদী।

গত ১৮ জুলাই মামলার তপ্তকারী অফিসার সিআইডি কর্মকতা মোল্যা লুৎফর রহমান মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে ৩১ জনের নামে চার্জশিট দাখিল করেন। তবে চার্জশিটে প্রকৃত আসামিদের বাদ দিয়ে একাধিক নির্দোষ ব্যক্তির নাম অন্তর্ভুক্ত করায় মামলার বাদী নিহত বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাত হোসেনের ছেলে আল মামুন সুমন মোল্যা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

তিনি জানান, ২০১৭ সালের ১৭ জুন হরিণটানা থানায় ৮ জনকে এজাহার নামীয় এবং ৭/৮ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে মামলা দায়েরের পর থানার তদন্ত শেষে মামলা গোয়েন্দা পুলিশের হাতে ন্যস্ত করা হয়। ডিবি পুলিশের তৎপরতায় মামলা নিয়ে আমরা আশাবাদী হয়েছিলাম। কিন্তু যারা আমার পিতাকে হত্যা করিয়েছে সেই সব প্রভাবশালী ভূমিদস্যু গং এর প্রধানের ইশারায় মামলাটি এক রহস্যজনক কারণে ডিবি থেকে সিআইডিতে চলে যায়।

তখন সিআইডি কর্মকর্তা শাজাহান মামলাটি তদন্ত করেন। কিন্তু ওই প্রভাবশালী গংদের ইশারায় মামলার চার্জশীট দেয়ার প্রাক্কালে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শাজাহানকে শরিয়ে মোল্যা লুৎফর রহমানকে দেয়া হয়। মোল্যা লুৎফ্ফর রহমান আসামিদের সাথে যোগসাজশে দেন দরবার করে এবং আসামিদের নাম বাদ দেয়ার জন্য মোবাইল ফোনে তাকেও অর্থের বিনিময়ে অনৈতিক অনুরোধ জানান যার কল রেকর্ডিং বাদীর কাছে সংরক্ষিত আছে বলে বাদী জানান। বাদীর দেয়া আসামিদের বাদ দিয়ে নির্দোষ ব্যক্তিদের আসামি করায় আজ তার আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে নারাজি পিটিশন দায়ের করবেন বলে বাদী জানান।

এ বিষয়ে জানতে চেয়ে সিআইডির তদন্তকারী কর্মকর্তা মোল্যা লুৎফর রহমানে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, তদন্তে যা পেয়েছি সেই অনুযায়ী বিজ্ঞ আদালতে চার্জশীট দিয়েছি।

আরও পড়ুন : চেয়ারম্যানের পাহাড় কাটার ঘটনায় আদালতের মামলা

উল্লেখ্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাত হোসেন মোল্যা এলাকার ভূমিদস্যুদের পরিকল্পনায় ২০১৭ সালের ১৪ জুন ইফতারের পর ৮/১০ জন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী তাকে লক্ষ্য করে একাধিক গুলি করে। ঘাড়ে, হাতে ও বুকে গুলি লেগে ঘটনাস্থলেই শাহাদাত হোসেনের মৃত্যু হয়। এসময় সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত হন লিয়াকত খান ও তার ছেলে মোস্তফা বুলবুল ও রুবেল। নিহত শাহাদাত হোসেনের শরীরে সর্বমোট ১১টি গুলিবিদ্ধ হয়।

ওডি/এফই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড