• মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভারত ফেরত যাত্রীদের ছাড়পত্র সিন্ডিকেট চক্রের হাতে

  জাহিরুল মিলন, শার্শা (যশোর)

০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:২১
ছবি : দৈনিক অধিকার

বেনাপোল আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন দিয়ে ভারত থেকে আসা বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে না পাঠিয়ে কাগজপত্র জাল করে বাড়িতে পাঠিয়ে দিচ্ছে একটি সিন্ডিকেট চক্র।

ভুয়া সিলসহ একটি জাল রেফারেল ফর্ম মিরা রানী সাহা পাসপোর্ট নং বি/এন-০৬৩৩৯২৫ নামে এক যাত্রীর কাছ থেকে উদ্ধার করেন শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলীফ রেজা। এ সময় সিন্ডিকেটের সদস্যরা ছিটকে পড়ে। তবে এ সিন্ডিকেট সদস্যদের সাথে স্বাস্থ্যকর্মী হাসানুজ্জামান জড়িত থাকতে পারে বলে অনেকেই জানিয়েছেন। তাদের দাবি যদি স্বাস্থ্যকর্মী হাসানুজ্জামানকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাহলে বেড়িয়ে আসবে মূল রহস্য।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই বলেন পাসপোর্ট যাত্রীদের ডাবল টিকা, ক্যান্সার, কিডনি রোগীর ছাড়া যে সমস্ত রোগীদের ডাবল টিকা দেওয়া নেই তাদের অনেকের কাছ থেকে একটি সিন্ডিকেট চক্র ১৫ থেকে ২০ হাজার করে টাকা নিয়ে স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীদের সহযোগিতায় রেফারেল ফর্ম জাল করে প্রাতিষ্ঠানিক কোরেন্টাইনে না পাঠিয়ে যাত্রীদের বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এদিকে স্বাস্থ্য কর্মী হাসানুজ্জামানকে প্রায় ৬ মাস আগে চেকপোস্ট থেকে বদলী করা হলেও তাকে চেকপোস্টে ডিউটি করতে দেখা যায়।

রবিবার (৫ সেপ্টেম্বর) চেকপোস্ট স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ডিউটিরত ছিলেন ডা. আবু তাহের, স্বাস্থ্যকর্মী হাসানুজ্জামান, মাহবুব ও প্রমিলা।

এ ব্যাপারে ডা. আবু তাহের মোবাইলে জানান, বিকাল সাড়ে ৩ টার দিকে শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলীফ রেজা স্যার ইমিগ্রেশনে এসে পাসপোর্ট যাত্রী মিরা রানী সাহা যার পাসপোর্ট নং বি/এন-০৬৩৩৯২৫। তার কাজ থেকে জাল রেফারেল ফর্ম উদ্ধার করেন। তিনি আরও বলেন, জাল সনদে সিলও স্বাক্ষরের সাথে আমাদের স্বাক্ষরের কোন মিল নেই। তবে ধারণা করা হচ্ছে সনদপত্রটি বাহিরে থেকে ফটোকপি করা হয় সেখান থেকেও জাল হতে পারে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা জানান, এক পাসপোর্ট যাত্রীর কাছ থেকে স্বাস্থ্য বিভাগের একটি জাল সিল সংযুক্ত রেফারেল ফর্ম (সনদপত্র) জব্দ করা হয়েছে। জাল সনদপত্র কি ভাবে যাত্রীরা পেল বিষয়টি স্বাস্থ্য বিভাগের সাথে আলোচনা করে তদন্ত করে দেখা হবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ডা. ইউসুফ খান জানান, ইমিগ্রেশনের জাল সনদপত্রের বিষয় আমি জানি না। তবে যাত্রীদের কাছে কি ভাবে জাল সনদপত্র আসছে সেটা তদন্ত করে দেখা হবে।

ওডি/এমএ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড