• বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

লোকসানের আশঙ্কায় সরিষাবাড়ীর পশু খামারিরা

  রাইসুল ইসলাম খোকন, সরিষাবাড়ী (জামালপুর)

১৮ জুলাই ২০২১, ১০:২৪
গরু
গরুর খামার (ছবি : দৈনিক অধিকার)

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে কোরবানির ইদকে সামনে রেখে মুনাফা লাভের আশায় পরম যত্নে পশু লালন-পালন করলেও মহামারী করোনার (কোভিড-১৯) এর কারণে মাথায় হাত পড়েছে গরু খামারিদের। ইদের দিন যত এগিয়ে আসছে ততই শঙ্কা ঘিরে ধরছে খামারিদের। করোনায় পশুর হাটে ক্রেতা না থাকায় সঠিক মূল্য না পাওয়া নিয়ে চিন্তায় প্রহর কাটছে খামারিদের। বড় ধরনের লোকসানের আশঙ্কা করছেন তারা।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ সূত্রে জানা যায়, এ বছর উপজেলায় বিভিন্ন ইউনিয়নে কোরবানি ইদকে সামনে রেখে ৬২০ টি খামারে ৩ হাজার ৭৫০টি পশু মোটাতাজা করন করা হয়। এর মধ্যে গরু ২ হাজার ৯৫০টি, ছাগল ৬০০ ও ভেড়া রয়েছে ২ শতাধিক। কোরবানির ইদকে সামনে রেখে এ সময়টা উপজেলার বিভিন্ন পশুর হাটবাজারে থাকে ক্রেতার আনাগোনা। কিন্তু করোনায় লকডাউনে পশুর হাট কিছুটা চললেও ক্রেতার দেখা না পাওয়ায় বিরাট লোকসানের শঙ্কায় আছেন খামারিরা। ন্যায্য দাম না পেলে পথে বসতে হবে তাদের।

মাশআল্লা ডেইরী ফার্মের শ্রমিক সাইফুল ইসলাম ও সাগর মিয়া জানান, আমাদের খামার মালিক ইদকে সামনে রেখে শতাধিক গরু মোটাতাজা করেছেন। মহামারী করোনার কারণে গরু হাটে নেওয়া যাচ্ছে না। মালিকের অনেক টাকা লোকসানে সম্ভাবনা রয়েছে।

খামার মালিক আলহাজ আব্দুল লতিফ খান জানান, আমি ৫২ বছর সৌদি আরব ছিলাম নয় বছর আগে দেশে এসে ১০৫ একর জমি লিজ নিয়ে গরুর খামার করেছি। ইদকে সামনে রেখে গরু মোটাতাজা করেছি। লকডাউনের কারণে গরুহাট বন্ধ ছিল এখন শিথীল করা হলেও করোনার কারণে ক্রেতা নেই হাটে। খামারেও কোন বেপারি আসছে না। গরু বিক্রি না করতে পারলে বড় ধরনের লোকসান হবে। তাই সরকারের কাছে সহায়তা কামনা করেন তারা।

সরিষাবাড়ী উপজেলা ভেটেরিনারি সার্জন মো. আতিকুর রহমান বলেন, ইদকে সামনে রেখে উপজেলার ৬২০টি খামারি ৩ হাজার ৭৫০টি পশু মোটা তাজা করেছেন। করোনাকালিন সময়ে পশু ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য অনলাইন প্লাটর্ফম চালু করা হয়েছে। খামারিদের দিক বিবেচনা করে তাদের লোকসান পুষাতে সরকারি সহায়তা কামনা করছেন খামারিরা।

ওডি/এমএ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড