• শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

দুর্গম পাহাড়ের ওপর পৌঁছে গেছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর

  কবির হোসেন, কাপ্তাই (রাঙ্গামাটি)

১৫ জুলাই ২০২১, ১৩:০৮
কাপ্তাইয়ে সুউচ্চ পাহাড়ের ওপর প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পরিদর্শন করেন ইউএনও (ছবি : দৈনিক অধিকার)

রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে পাহাড়ের ভাঁজে ভাঁজে অত্যন্ত দুর্গম জনপদেও পৌঁছে গেছে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য দেওয়া প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর।

বুধবার (১৪ জুলাই) বিকালে রাঙামাটির কাপ্তাইয়ের ৫টি ইউনিয়নের সুউচ্চ দুর্গম এলাকা পার হয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পৌঁছে দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও তার টিম।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনতাসির জাহান বলেন, মার্চ মাস থেকে মে মাস- এই সময়টাতে এ অঞ্চলে থাকে তীব্র পানির সংকট। ৩-৪ কিলোমিটার দূরে গিয়ে পাহাড়ি ঝর্ণা থেকে পানি সংগ্রহ করে এখানে নির্মাণ কাজ করতে হয়। এক একটি দুর্গম এলাকায় নির্মাণ সামগ্রী পৌঁছাতেই যেখানে ২-৩ মাস সময় লাগে সেখানে আজ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরগুলো। দূর থেকে পাহাড়ের সবুজের মাঝে লাল টিনের ঘরগুলো দেখে মনে হয় একখণ্ড পতাকা। প্রধানমন্ত্রীর ভিশন বাস্তবায়নে আমরা দিনরাত ছুটে চলেছি।

কাপ্তাই উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুল হান্নান বলেন, মোট ৭৩টি ঘরের মধ্যে গত ২৩ জানুয়ারি এবং গত ২০ জুন ২০২১ এ দুই ধাপে ৬৫টি ঘর মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে উপকার ভোগীদের মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হয়েছে। বাকি ৮টি ঘরের কাজও প্রায় শেষপর্যায়ে।

উপজেলার চিৎমরম ইউনিয়নের উজানছড়ি পাড়ায় সমতল থেকে প্রায় ৩শ ফুট সুউচ্চ পাহাড়ের উপর ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে স্থানীয় স্বামীহারা অসহায় প্রুসিংমা মারমাকে। তিনি বলেন, আমার মাথা গোঁজার ঠাঁই ঘরটি ছিল জরাজীর্ণ। বৃষ্টি হলে পানি পড়তো। ঝড়-তুফান হলে অজানা আতঙ্কে থাকতাম আমরা। প্রধানমন্ত্রীর এই ঘর আমাকে এবং আমার ছেলে-মেয়েদের নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখাচ্ছে।

৩নং চিৎমরম ইউনিয়ন চেয়ারম্যান খাইসাঅং মারমা বলেন, আমার ইউনিয়নে সর্বমোট ২২টি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। তন্মধ্যে দুর্গম চাকুয়াপাড়ায় ঘর আছে ৫টি, যেখানে মালামাল বহন করে নেওয়া অত্যন্ত দুরূহ। প্রশাসনের অক্লান্ত পরিশ্রমে এই ঘর নির্মাণ করা সম্ভব হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, চিৎমরমের ফুইট্টাছড়ি, উজানছড়ি, চিৎমরম বড় পাড়া, মুসলিম পাড়ায়ও অতি দরিদ্র জনগোষ্ঠী লোকজন এসব ঘর পেয়েছেন।

ওডি/এএম

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet