• শুক্রবার, ০৬ আগস্ট ২০২১, ২২ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

করোনা পাল্টে দিয়েছে কামার দোকানের চেনা রূপ

  হোসাইন আরফাত, রাউজান (চট্টগ্রাম)

১৫ জুলাই ২০২১, ১০:৩১
চট্টগ্রাম
কামার দোকান (ছবি : দৈনিক অধিকার)

সারাবছর ব্যস্ততা কম থাকলেও কোরবানির ইদে ব্যস্ততা বেড়ে যেতো কামারদের দোকানে। দিনরাত টুংটাং শব্দে মুখর থাকতো কামারশালা। কিন্তু এবার রাউজানের কামার দোকানে আগের সেই ব্যস্ততা নেই। তাই কমে গেছে টুং টাং শব্দ। করোনা-লকডাউন কামার দোকানের চিরচেনা সেই রূপ পাল্টে দিয়েছে। যে কারণে সারা বছরের প্রত্যাশিত ইদের সময়েও অনেক কামার দোকানে অলস সময় কাটাচ্ছেন। বেঁচা-কেনা কম, অনেক কামারের মুখে হতাশার চাপ।

প্রতিবছর কোরবানির ইদের আগে দা, ছুরি, বঁটি, চাপাতি ইত্যাদিতে ভরে যেতো কামারশালা। সারিসারি সাজিয়ে রাখা হতো পশু জবাহে ও কাটতে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাদিগুলোকে। তবে এবার কামার দোকান ঘুরে দেখা গেছে আগের মত সাজিয়ে রাখা হয়নি দা, ছুরি, বঁটি, চাপাতি। রাউজানের অনেক দোকানের চিত্র এটি।

কামাররা বলছেন, চাহিদা কম তাই প্রতি বছরের ন্যায় এবার অতটা দা, ছুরি, বঁটি সরঞ্জামাদি আনা হয়নি। ক্রয় না করলে, দা, ছুরি, বঁটি সাজিয়ে কি হবে।

রাউজান সদরের কামার পল্লী হিসেবে পরিচিত কাঁশখালীখাল সংলগ্ন দিলীপ কামারশালার মালিক দিলীপ কর্মকার বলেন, করোনা-লকডাউন একেবারে শেষ করে দিয়েছে আমাদের। কোরবানির ইদের আশায় বসে থাকি। মানুষজন আসবে দা, ছুরি কিনবে, জৌলুস হবে। কিন্তু এবার কিছুই নেই। ক'দিন পরেই ইদ এখনও ব্যবসা জমে উঠেনি।

বিশ্বকর্মা কামারশালার আরেক পুরাতন ব্যবসায়ী বাবুল কর্মকার বলেন, কোরবানির ইদের জন্যে অনেক টাকা পুঁজি খাটিয়েছি। জানি না সেটাও তুলতে পারবো কিনা। কয়লা, পাথরের দাম বেড়ে গেছে। আগে যেখানে এক বস্তা কয়লা কিনতাম ২০০-২৫০ টাকায় তা এখন ৩৫০-৪০০ টাকায় কিনতে হচ্ছে। ২৫ টাকার পাথর ৩৫ টাকা হয়েছে। এদিকে দা, ছুরি, বঁটি এখনও কিনছে না। আগের মত মাংস কাটার প্রয়োজনীয় সংঞ্জামও সংস্কার করতে দিচ্ছে না অনেকে।

নিখিল কর্মকার জানান, লকডাউনের কারণে ঠিকমত দোকান খুলতে পারছেন না। প্রশাসনের কর্মকর্তারা সবসময় টহলে থাকে। তাই ব্যবসা আগের মত নেই।

রাউজান উপজেলার বিভিন্ন স্থানের কামার পল্লীতে ঘুরে দেখা গেছে আগের সেই আমেজ নেই। আগে যেখানে একটি কামারশালায় ৫-৬ জন লোক কাজ করতো, সেখানে এবার মাত্র ২-৩ জন কাজ করছে। অনেক কামার বেকায়দায় পড়েছেন। যদি ইদের আগে সামনের দিনগুলোতে বেচাকেনা না হয় লোকসান গুণতে হবে এমন চিন্তার ভাঁজ কামারদের।

ওডি/এফই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড