• বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নরসিংদীতে আ. লীগ নেতার হত্যার বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

  মনিরুজ্জামান, নরসিংদী

১৪ জুলাই ২০২১, ১৫:১৬
নরসিংদী
সংবাদ সম্মেলন (ছবি : দৈনিক অধিকার)

নরসিংদীতে নজরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রাজা মিয়া জনির হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন নিহতের স্ত্রী হাশুরা বেগম ও এলাকাবাসী।

বুধবার (১৪ জুলাই) বেলা ১১টায় নরসিংদী সদর উপজেলার নজরপুর ইউনিয়নের নবীপুর গ্রামে আততায়ীর হাতে নিহত রাজা মিয়ার বাড়িতে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে এ সংবাদ সম্মেলন হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিহতের স্ত্রী হাশুরা বেগম।

বক্তব্যে তিনি বলেন, ২০১৯ সালের ২৮ আগস্টে আমার স্বামী রাজা মিয়া জনিকে অপু গংদের বাড়ির কুচক্রী মহলের লোকেরা রাতের আঁধারে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করেছে। আজ দুই বছর হয়ে গিয়েছে তার হত্যার বিচার পাইনি।

বর্তমানে আমি আমার ছেলেমেয়েদের নিয়ে চরম উৎকণ্ঠা ও নিরাপত্তা হীনতার মধ্যে মানবেতর জীবন-যাপন করছি। আমার স্বামীকে কুপিয়ে জখম করার পর প্রথমে ৮ জনকে আসামি করে আমার দেবর আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে আমার স্বামীর দেওয়া জবানবন্দি মোতাবেক তার মৃত্যুর পর ১৬ জনকে আসামি করে নরসিংদী কোর্টে আমি বাদী হয়ে আরও একটি মামলা দায়ের করি।

কিন্তু ডিবি পুলিশের মোস্তাক আহমেদ আসামিদের কাছ থেকে টাকার বিনিময়ে চার্জশিট থেকে আট জনের নাম বাদ দিয়ে দেয়। পরবর্তীতে উক্ত ৮ জনের বিরুদ্ধে আমি কোর্টে নারাজি আবেদন করি। কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে বিচার কাজ বিলম্বিত হচ্ছে।

জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্যে করে তিনি আরও বলেন, তিনি তার পিতার বিচার যেভাবে করেছেন ঠিক সেইভাবে প্রশাসনকে অনুমতি দিয়ে আসামিদের ফাঁসির কাষ্ঠে ঝুলিয়ে যেন আমার স্বামীর হত্যার বিচার করেন।

নরসিংদী সদর আসনের সংসদ সদস্যের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, এমপি সাহেব অনেক ভালো মানুষ। তিনি কথা দিয়ে কথা রাখেন। আমার স্বামী হত্যার বিচারের জন্য তিনি সবসময় আমার পাশে থাকবেন। আমার স্বামীকে হত্যার পর হত্যাকারীরা বাড়িঘর ত্যাগ করে চলে গিয়েছিল ‌। কিন্তু বর্তমানে তারা নিজেদের নির্দোষ দাবি করে বিভিন্নভাবে আমাকে এবং আমার পরিবারের সদস্যদের হুমকি দিয়ে আসছে। এ ব্যাপারে আমি প্রশাসন, এমপি মহোদয়, নজরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের প্রতি হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচারসহ নজরপুর ইউনিয়নে তাদের প্রবেশাধিকার নিষিদ্ধ করার দাবি জানাই।

এই সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন, বিএনপি ও জামায়াতের সাথে যুক্ত হয়ে পুনরায় তারা এলাকায় প্রবেশ করে আমার ছেলেমেয়েসহ আমার প্রাণ নাশের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। আমার অথবা আমার সন্তানদের কোন ক্ষয়ক্ষতি হলে এর দায়ভার কে নেবে প্রশ্ন রেখে জননেত্রী শেখ হাসিনার নিকট তার স্বামীর হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- নজরপুর ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য ও ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বোরহান উদ্দিন বেপারী, সাধারণ সম্পাদক গোলজার হোসেন, সহ সভাপতি ইসমাইল কাজী, নজরপুর ইউনিয়ন জাতীয় শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কাইয়ুম মিয়া, নিহতের মেয়ে রুবিনা আক্তার (২২), চাঁদনী আক্তার (২০), ছেলে শাহাদাত হোসেন (১৭) সহ এলাকার কয়েক শতাধিক নারী-পুরুষ, বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা।

ওডি/এফই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড