• রোববার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চন্দনাইশে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প পরিদর্শনে চেয়ারম্যান

  মো. কামরুল ইসলাম মোস্তফা, চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম)

১৪ জুলাই ২০২১, ১২:১৪
চট্টগ্রাম
আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প পরিদর্শনে চেয়ারম্যান (ছবি : দৈনিক অধিকার)

চন্দনাইশ উপজেলার দোহাজারী পৌরসভায় আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় বৈলতলী ও দিয়াকুল আশ্রয়ণ প্রকল্প ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য ২২টি গৃহনির্মাণের কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

সোমবার (১২ জুলাই) বৈলতলী ও দিয়াকুল আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেছেন চন্দনাইশ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ আবদুল জব্বার চৌধুরী।

রবিবার (২০ জুন) উপজেলা পরিষদের মিলনায়তনে বৈলতলী আশ্রয়ণ প্রকল্পের ২৯টি ও দিয়াকুল আশ্রয়ণ প্রকল্পের ২২টি ঘরের চাবি ও জমির দলিল উপকারভোগীদের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করেন তিনি। আশ্রয়ণ প্রকল্পের মধ্যে ২০টি পরিবার ইতিমধ্যে ঘরে উঠে বসবাস করছেন। বাকি ৯টি ঘরের উপকারভোগীরা ঈদ-উল-আজহার পর ঘরে উঠবেন বলে জানা গেছে।

তবে দিয়াকুল আশ্রয়ণ প্রকল্পের উপকারভোগীরা ঘরের চাবি ও জমির দলিল হস্তান্তরের ২২দিন পেরিয়ে গেলেও নির্মাণকাজ পুরোপুরি শেষ না হওয়ায় ঘরে উঠতে পারেননি। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি, লকডাউন, ঈদের ছুটি, শ্রমিক সংকট ও বৃষ্টির বাগড়ার কারনে নির্মাণকাজ বিলম্বিত হওয়ায় উপকারভোগীরা এতোদিন ঘরে উঠতে না পারলেও ঈদ-উল-আজহার পর ঘরে উঠবেন বলে জানা যায়।

পরিদর্শন বিষয়ে চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ আবদুল জব্বার চৌধুরী বলেন, ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরগুলো নির্মাণে কোন প্রকার ত্রুটি আছে কিনা এবং ঘরগুলোতে বসবাসরতদের কোন ধরণের অসুবিধা হচ্ছে কিনা তা সরেজমিনে দেখতে গিয়েছি।

আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প পরিদর্শনের সময় তার সাথে ছিলেন- উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া ইসলাম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহফুজা জেরিন, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম, ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের চন্দনাইশের উপসহকারী প্রকৌশলী ফরহাদ উদ্দিন।

ওডি/এফই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet