• বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পলাশে আরএফএল ইলেকট্রনিক্সে আগুন, ফায়ার সার্ভিসকে ঢুকতে বাধা

  নাসিম আজাদ, পলাশ (নরসিংদী)

১৪ জুলাই ২০২১, ১১:৪১
ফায়ার সার্ভিস টিমকে ভেতরে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না নিরাপত্তা কর্মীরা
ফায়ার সার্ভিস টিমকে ভেতরে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না নিরাপত্তা কর্মীরা। (ছবি : দৈনিক অধিকার)

নরসিংদী পলাশের ডাংগার কাজীরচরে প্রাণ আরএফএল গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান আরএলএফ ইলেকট্রনিক্স কারখানার নির্মাণাধীন ভবনে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। তবে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌছলে তাদেরকে গেইট থেকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষের।

সোমবার (১৩ জুলাই) বিকালে পলাশের ডাংগার কাজীরচরে অগ্নিকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে। নরসিংদী ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স কার্যালয়ের সিনিয়র স্টেশন অফিসার শাহীন আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

শাহীন আলম বলেন, সোমবার বিকাল সোয়া ৪ টায় পলাশের ডাংগার কাজীরচরে অগ্নিকাণ্ডের খবর পাই। সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে নরসিংদী ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট উপস্থিত হলে কারখানার প্রধান ফটকে ফায়ার সার্ভিসের দলকে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আটকে দেয় কারখানার নিরাপত্তা কর্মীরা। দীর্ঘ ২০ মিনিট আটকে রাখার পর ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হয়। আগুনের ব্যাপ্তি দেখে নরসিংদী সদর অফিসে জানানো হয়। এরপর নরসিংদী সদরের ৩টি ইউনিট ও পলাশের দুটি ইউনিটসহ মোট ৫টি ইউনিটের প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টার প আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই।

তিনি বলেন, নির্মাণাধীন ভবন হওয়ার সেখানকার মালামাল ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কিভাবে আগুন লেগেছে সঠিক বলা যাচ্ছে না। তবে ঘটনার সার্বিক পরিস্থিতিতে ধারণা করা হচ্ছে আগুনের ঘটনাটি রহস্যজনক।

ঘটনার বিষয়ে প্রাণ আরএফএল গ্রুপ পলাশের উপ মহা ব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মোস্তাক আহমেদ জানান, ডাংগায় ইলেকট্রনিক্স বিভাগের নির্মাণাধীন ভবনে আগুন লাগার পর প্রথমে পলাশ ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। তারা ভেতরে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে। পরবর্তীতে নরসিংদী ইউনিট ঘটনাস্থলে আসলে স্থানীয়রা ও পুলিশ তাদের কিছুক্ষণ আটকে রাখে।

তিনি বলেন, কারখানায় এমন সচরাচর আগুনের ঘটনা প্রায়ই ঘটে থাকে। আর আগুনের ঘটনায় বেশী ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। ৪-৫ লাখ টাকার মতো ক্ষতি হয়েছে।

প্রাণ আরএফল ডাংগার চড়কা টেক্সটাইলের এজিএম সাইফুল ইসলাম জানান, আগুনের ঘটনার পর পলাশ ফায়ার সার্ভিস যথা সময়ে কাজ শুরু করে। আর নরসিংদী ফায়ার সার্ভিসকে আটকে রাখার ঘটনা তেমন কিছু নয়।

ঘটনার বিষয়ে পলাশ ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. সাদিকুল বারী জানান, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পৌঁছে কাজ শুরু করা হয়। একটু পর নরসিংদী থেকে ৩টি ইউনিট আসলে তাদেরকে গেইটে আটকে দেওয়া হয়। যা বেআইনি ও অনধিকার চর্চা এবং কাজে বাধাদানের সামিল।

কিভাবে আগুনের সূত্রপাত জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্মাণাধীন কাজ করতে গিয়ে যে ভাইব্রেটর ব্যবহার করা হচ্ছে সেখান থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে।

ওডি/জেআই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড