• শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ৫ আষাঢ় ১৪২৮  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাজশাহী সিটিতে ১৭ জুন পর্যন্ত সর্বাত্মক লকডাউন

  রাজু আহাম্মেদ, রাজশাহী

১১ জুন ২০২১, ১৩:৫৭
রাজশাহী সিটি করপোরেশনে কর্মকর্তাদের জরুরি বৈঠক
রাজশাহী সিটি করপোরেশনে কর্মকর্তাদের জরুরি বৈঠক। (ছবি: সংগৃহীত)

রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক) এলাকায় সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করেছে স্থানীয় প্রশাসন। শুক্রবার (১১ জুন) বিকাল ৫টা থেকে ১৭ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত লকডাউন সংক্রান্ত বিধিনিষেধ বলবত থাকবে। এই সময়ের মেধ্য সিটি করপোরেশন এলাকায় বাস-ট্রেন চলাচল ও মার্কেট বন্ধসহ সার্বিক কার্যাবলী ও চলাচলে বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) রাত সাড়ে ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত চলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের জরুরি বৈঠক শেষে হঠাৎ করেই এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে। রাজশাহী বিভাগের মধ্যে রাজশাহী সিটি করপোরেশন এলাকায় করোনা রোগের বিস্তার ও মৃত্যু বৃদ্ধি পাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভা শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. হুমায়ুন কবীর। তিনি বলেন, জেলায় নমুনা পরীক্ষার তুলনায় সনাক্তের হার ও মৃত্যু হার বিশ্লেষণ করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি আব্দুল বাতেন, মহানগর পুলিশের কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক, জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল ও স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

বিভাগীয় কমিশনার জানান, রাজশাাহী বিভাগের মধ্যে রাজশাহী সিটি করপোরেশন এলাকায় করোনা পরিস্থিতি সবচাইতে খারাপ পর্যায়ে আছে। এই এলাকায় শনাক্তের হার বেশি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সর্বাত্মক লাকডাউনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। শুক্রবার বিকাল ৫টা থেকে ১৭ জুন দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বলবত থাকবে। এই সময়ের মধ্যে সকল প্রকারের বাস-ট্রেন সিটি করপোরেশন এলাকায় ঢোকা বা বাহির হতে পারবে না। শপিংমল, মার্কেট, দোকানপাটসহ রেস্টুরেন্ট, বিনোদনকেন্দ্র, পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ থাকবে। জনসমাগম হয় এমন যে কোনো সামাজিক বা রাজনৈতিক কর্মসূচি বন্ধ থাকবে। এই বিধিনিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলেও হুশিয়ারি দেন বিভাগীয় কমিশনার।

মাছ ও আমের মতো কৃষিপণ্য পরিবহণ করা যাবে। জরুরি সেবা যেমন, ওষুধ, কাঁচাবাজার, চিকিৎসাসেবা, রোগী পরিবহণ, মৃতদেহ দাফনের সঙ্গে জরুরি কাজ করা যাবে। একই সাথে বৃহৎ পরিসর এড়িয়ে স্বাস্থ্য বিধি মেনে কাঁচামাল যেমন আমের হাট ও কাঁচাবাজার পরিচালনার পরামর্শ দেন বিভাগীয় কমিশনার।

এর আগে, গত ৪ জুন জেলা প্রশাসন সন্ধ্যা থেকে লকডাউন জারি করে। তবে সেই লকডাউন কার্যত কোনো কাজে আসেনি। জনগণ যেমন লকডাউন মান্য করেনি, তেমনি প্রশাসনকেও সন্ধ্যার পর লকডাউন বলবত করতে মাঠে দেখা যায়নি।

এদিকে রাজশাহী বিভাগের মধ্যে রাজশাহী সিটি করপোরেশন এলাকায় করোনার সংক্রমণ এবং এই রোগে ও উপসর্গে মৃত্যুর হার বেড়ে গেছে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল রোগী ধারণের সক্ষমতা হারাতে চলেছে। পরিস্থিতির নিয়ন্ত্রণে জন্য স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগসহ চিকিৎসকরা বার বার কঠোর লকডাউনের ওপর জোর দিয়ে আসছিলেন।

রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাবিবুল আহসান তালুকদার বলেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশন এলকায় সংক্রমণের হার বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ। হাসপাতালে রোগী রাখার জায়গা হাচ্ছে না। সাধারণ রোগীদের সরিয়ে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ২৭১ টি বেড প্রস্তুত করা হয়েছে। শুক্রবার সেখানে রোগী রয়েছেন ২৯৭ জন। প্রতিদিন আইসোলেশন ওয়ার্ডে বেড বৃদ্ধি করেও জায়গার সঙ্কুলান হচ্ছে না। এতে করে হাসপাতালে অন্য সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা দিতে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হচ্ছে। পরিস্থিতির উন্নয়নের জন্য রাজশাহীতে করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের প্রয়োজন।

সিভিল সার্জনের দেওয়া তথ্য মতে, গত ১ মার্চ ২০২০ থেকে ১০ জুন ২০২১ পর্যন্ত রাজশাহী জেলায় ১১ হাজার ৩৬১ জনের নমুনায় করোনা ধরা পড়েছে। যাদের মধ্যে ৯ হাজার ২৯১ জনই রাজশাহী সিটি করপোরেশন এলাকার। বাকি ২ হাজার ৭০ জন জেলা ৯টি উপজেলার বাসিন্দা। এই সময়ের মধ্যে মরা গেছেন ১০৩ জন। যাদের মধ্যে ৬৮ জনই রাজশাহী সিটি এলাকার।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপতালের করোনা পরীক্ষা ল্যাবে ৩৭৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। যেখানে ১৬৪ জনের নমুনায় করোনা ধরা পড়েছে। যার মধ্যে রাজশাহী ১৮৫ জনের নমুনায় করোনা পজিটিভ ৭০ জন। চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৭৪ জনে পজিটিভ ২৯ জন, নাটোরে ৭৩ জনে ৪৪ পজিটিভ এবং নওগাঁর ৪২ জনে পজিটিভ ২১ জন। এছাড়া রামেক হাসপাতালের করোনা পরীক্ষা ল্যাবে একই দিন ১১৩ জনের নমুনায় ৭৩ জনের করোনা ধরা পড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতারের আইসোলেশন ওয়ার্ডে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ১৫ জন। যাদের মধ্যে ৮ জনই রাজশাহীর। ৬ জন চাঁপাইনবাবগঞ্জের এবং ১ জন নাটোরের বাসিন্দা।

ওডি/জেআই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড