• রোববার, ২০ জুন ২০২১, ৬ আষাঢ় ১৪২৮  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মেঘনা নদীতে বাল্কহেড ডুবে দুই শ্রমিক নিখোঁজ

  সারাদেশ ডেস্ক

১০ জুন ২০২১, ১৬:১৩
নিখোঁজ শ্রমিকদের উদ্ধারে নদীতে অভিযান চলছে (ছবি : সংগৃহীত)

চাঁদপুরের মেঘনা নদীতে বালুভর্তি এমভি মক্কা মদিনা-৩ নামের একটি বাল্কহেড ডুবে দুই শ্রমিক নিখোঁজ হয়েছে।

বুধবার (৯ জুন) মধ্যরাতে মতলব উত্তর উপজেলার মোহনপুর এলাকায় মেঘনা নদীতে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় বাল্কহেডে থাকা চার শ্রমিকের মধ্যে মো. মহিউদ্দিন ও নাঈম শিকদার সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও পানিতে ডুবে নিখোঁজ হন ঘুমিয়ে থাকা শ্রমিক মো. মিজানুর ও সাজু সিকদার। তাদের বাড়ি বরগুনা জেলার তালতলি উপজেলায়।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) সকাল থেকে নিখোঁজ শ্রমিকদের উদ্ধারে নদীতে অভিযান চালাচ্ছেন কোস্টগার্ড, নৌ-পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। তবে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

উদ্ধার হওয়া শ্রমিকদের বরাত দিয়ে মোহনপুর নৌ-ফাঁড়ির ইনচার্জ পরাদর্শক মো. ওয়াহিদ্দুজ্জামান বলেন, বুধবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশ্যে চাঁদপুর থেকে ছেড়ে আসা বালুভর্তি বাল্কহেডটি রাতে মতলব উত্তর উপজেলার মোহনপুর এলাকায় মেঘনা নদীতে নোঙর করে।

মধ্যরাতে হঠাৎ করে বাল্কহেডটি পানিতে ডুবে যায়। এ সময় ছাউনির উপড়ে থাকা দুই শ্রমিক সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও ভেতরে ঘুমিয়ে থাকা দুইজন পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয়।

চাঁদপুর নৌ অঞ্চলের পুলিশ সুপার মো. কামরুজ্জামান বলেন, বালিভর্তি থাকায় এমনিতেই বাল্কহেডটি পানিতে অর্ধনিমজ্জিত ছিল। রাত আনুমানিক ১-২টার সময় পুরোটা ডুবে যায়। ধারণা করছি, নদীতে বয়ে যাওয়া বাতাস ও ঢেউয়ের কারণে পানিতে ডুবে থাকতে পারে।

তিনি জানান, নিখোঁজ শ্রমিকদের উদ্ধারে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে নৌ পুলিশ, কোস্টগার্ড ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা যৌথভাবে উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছেন। তবে এখনো পর্যন্ত কারো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড