• বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মারা গেছে শুনে জামাইকে ফেলে গেলেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন!

  আল মামুন জীবন, ঠাকুরগাঁও

০৯ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৩৬
রাণীশংকৈল থানা
রাণীশংকৈল থানা। (ছবি : দৈনিক অধিকার)

অচেতন অবস্থায় জামাইকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর মারা গেছেন শুনে মরদেহ ফেলে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে।

গত বুধবার (৭ এপ্রিল) রাতে ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত জামাই ইবনে মুকুল (৪৫) ওই উপজেলার কলেজপাড়া গ্রামের মরহুম মুক্তিযোদ্ধা ইয়াকুব আলীর ছেলে।

পরিবার লোকজন জানায়, বৃহস্পতিবার মুকুলের স্ত্রী ও ছেলে হাসপাতাল থেকে মরদেহ নিয়ে বাড়ীতে দাফনের প্রস্তুতি গ্রহণকালে বাধা দেন মৃতের চাচা আব্দুল লতিফ।

আব্দুল লতিফের অভিযোগ, তার ভাতিজাকে মেরে ফেলা হয়েছে। ময়না তদন্ত এবং ঘটনার তদন্ত না হওয়া পর্যন্ত মরদেহ দাফন করতে দেননি তিনি।

এ ঘটনায় আব্দুল লতিফ বাদী হয়ে রাণীশংকৈল থানায় চারজনকে আসামী করে একটি এজাহার দায়ের করলে পুলিশ মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

রাণীশংকৈল থানার ওসি এস এম জাহিদ ইকবাল জানান, পুরো বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করছে। ময়না তদন্ত প্রতিবেদন আসলেই বুঝা যাবে ঘটনার প্রকৃত রহস্য। চারজনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান তিনি। গত মঙ্গলবার রাণীশংকৈর পৌর শহরের ভাটাপুড়া গ্রামে শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে যান ইবনে মুকুল। বুধবার সেখান থেকে তার শরীরের অবনতি হলে হাসপাতালে নেয় শ্বশুরবাড়ির লোকজন। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

ওডি/জেআই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড