• শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সাংবাদিকদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা, বিচারের দাবিতে স্মারকলিপি

  আল মামুন জীবন, ঠাকুরগাঁও

০৭ এপ্রিল ২০২১, ১৭:০৪
সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দাবিতে সাংবাদিকদের স্মারকলিপি প্রদান
সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দাবিতে সাংবাদিকদের স্মারকলিপি প্রদান। (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ঠাকুরগাঁওয়ে সাংবাদিকদের ওপর অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দাবিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ বিভিন্ন দপ্তরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। গত ১৮ দিনে ৩টি মামলা রুজু হলেও প্রকাশ্যে ঘোরাফেরা করছেন আসামীরা। এতে ন্যায় বিচার নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন তারা।

বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক কামরুজ্জামান সেলিমের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ বিভিন্ন দপ্তরে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির সদস্যরা।

আসামীদের গ্রেপ্তার না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করছেন সামাজিক, সাংস্কৃতিকসহ সুশীল সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা।

এক মামলার বাদী ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি এমদাদুল হক ভুট্টো বলেন, আমার ওপর হামলা হয়েছে, সময় টিভির কার্যালয় থেকে আমাকে মারধরের পর অপহরণ করা হয়েছে। যার ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। উক্ত ঘটনায় মামলা করার পরও আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। শুধু তাই নয় সরকারি বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিতেও দেখা যাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে ন্যায় বিচার নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

অন্য আরেকটি মামলার বাদী ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির অর্থ সম্পাদক জিয়াউর রহমান বলেন, আমরা জানি আইন সবার জন্য সমান। এখন বিয়ষটা উল্টো। প্রশাসনের চোখের সামনে আসামীরা ঘুরে বেড়ালেও তাদের গ্রেপ্তার করছে না। বিষয়টি দু:খজনক। এভাবে চলতে থাকলে আইনের প্রতি মানুষের আস্থা হারাবে।

ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ লিটু বলেন, ৩টি মামলা দায়ের হয়েছে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে। পুলিশ এখন পর্যন্ত একজনকেও গ্রেপ্তার করতে পারেনি। আমরা বাদীরা চরম অনিরাপত্তা ও ন্যায় বিচার নিয়ে সংশয়ে রয়েছি।

তিনি আরও বলেন, ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতাদের ওপর হামলায় ন্যায় বিচারের আশ্বাস দেন জেলা প্রশাসক। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আসামীদের গ্রেপ্তার না করলে সংগঠনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৮ই মার্চ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি এমদাদুল ইসলাম ভূট্টো, সাধারণ সম্পাদক আবদুল লতিফ লিটু, দপ্তর সম্পাদক জয় মহন্ত অলকসহ নেতৃবৃন্দের ওপর মনসুর আলীর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী হামলা চালায়।

এরপর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনে এবং ঠাকুরগাঁও নরেশ চৌহান সড়কে সময় টেলিভিশনের অফিসে পুনরায় সন্ত্রাসী হামলা ও অফিস ভাংচুর করে মনসুর আলী, লুৎফর রহমান মিঠু, নাহিদ রেজা, শাকিল আহম্মেদ, হিমেল তালুকদার, জুয়েল ইসলাম শান্ত, জুনায়েদ কবির ও মোহাম্মদ ইসলাম সহ অনেকেই।

মারধরের পর ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি এমদাদুল ইসলাম ভূট্টোসহ কয়েকজনকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সাংবাদিকরা প্রশাসনের সহযোগিতায় তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় পরে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতারা পৃথক ৩ টি মামলা দায়ের করেছেন।

ওডি/জেআই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড