• মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চন্দনাইশে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ, বৈলতলী ইউপির ভূমি উদ্ধার

  মো. কামরুল ইসলাম মোস্তফা, চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম)

০৭ এপ্রিল ২০২১, ১০:০৩
অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ করা হচ্ছে
অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ করা হচ্ছে। (ছবি : দৈনিক অধিকার)

চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার বৈলতলী ইউনিয়ন পরিষদের মাঠের একটি অংশ টিনের ঘেরা-বেড়া দিয়ে দখল করেছিলেন স্থানীয় আবু বক্কর ও ইব্রাহিম। এতে সড়কের যাত্রী ছাউনি তাদের ঘেরার ভেতরে চলে যায়। তাছাড়া ইউনিয়ন পরিষদের ভেতরে অবস্থিত শহীদ মিনারে যাওয়ার পথও বন্ধ হয়ে যায়।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) বিকালে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহফুজা জেরিন উপস্থিত হয়ে অবৈধ ঘেরা-বেড়া উচ্ছেদ করেন। এসময় তার সাথে চন্দনাইশ থানা পুলিশ, চন্দনাইশ প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ, চেয়ারম্যান আনোয়ারুল মোস্তফা চৌধুরী দুলাল ও ইউপি সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

গত ৩১ মার্চের বৈঠকে ১ এপ্রিল ঘেরা-বেড়া সরানোর নির্দেশনা দিয়েছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহফুজা জেরিন।

এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল মোস্তফা চৌধুরী দুলাল বলেছেন, কিছুদিন পূর্বে পরিষদের জায়গাটি স্থানীয় আবু বক্কর ও মো. ইব্রাহিম নামে ব্যক্তিদ্বয় দখল করার চেষ্টা করলে তিনি বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করেন। কিছুদিন তারা (দখলদার) নিরব থাকলেও হঠাৎ করে ১০/১৫ দিন আগে পুনরায় টিনের ঘেরা দিয়ে পরিষদের মাঠের একটি অংশ দখল করে নেয়। অথচ এ জায়গাটি দিয়ারা জরিপে পরিষদের নামে ৪ নং খতিয়ানে জরিপভুক্ত হয়। এ ব্যাপারে বিভাগীয় কমিশনার, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক, নির্বাহী কর্মকর্তাকে লিখিতভাবে অভিযোগ করেছেন তিনি। অভিযোগের প্রেক্ষিতে সহকারী কমিশনার ভূমির কার্যালয় থেকে তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন দেওয়া হয়। গত ৩১ মার্চ উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমির কার্যালয়ে এ বিষয়ে শুনানির শেষে গত ১ এপ্রিল পরিষদের জায়গায় অবৈধ টিনের ঘেরা-বেড়া সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। কিন্তু নির্দেশের ৬ দিন অতিবাহিত হলেও আবু বক্কর ও ইব্রাহিম তাদের দেওয়া ঘেরা-বেড়া সরান নাই। ফলে মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সহকারী কমিশনার (ভূমি) সরেজমিনে উপস্থিত হয়ে পরিষদের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেন। প্রশাসনের এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়ে সরকারি সম্পত্তি উদ্ধারের সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।

এ ব্যাপারে আবু বক্কর বলেছেন, আর.এস খতিয়ানমূলে তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি হিসেবে তারা দখল করেছেন। দিয়ারা জরিপে পরিষদের নাম আসলে তিনি কোন ধরণের আদালতে মামলা করেন নাই বলে জানান।

এব্যাপারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহফুজা জেরিন বলেন, ৬ নং বৈলতলী ইউনিয়ন পরিষদ এর নামে রেককৃত ০.০৬৫৮ একর জমি এবং ১ নং খতিয়ানের রাস্তা শ্রেণিভুক্ত ০.০১ একর মোট ০.০৭৫৮ একর জমি আবু বক্কর ও ইব্রাহীম নামক ব্যক্তিগণ অবৈধভাবে টিনের ঘেরা-বেড়া দিয়ে দখল করায় ইউনিয়ন পরিষদের চত্বরে অবস্থিত শহীদ মিনারে যাওয়া আসায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে। উপজেলা প্রশাসন উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনার মাধ্যমে অবৈধ জমি দখল মুক্ত করে বৈলতলী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এর নিকট জমি বুঝিয়ে দেয়। উচ্ছেদকৃত ঘেরা-বেড়ার সরঞ্জাম উপজেলায় নিয়ে আসা হয়েছে।

ওডি/জেআই

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড