• বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাঙামাটিতে যত্রতত্র বিক্রি হচ্ছে জ্বালানি তেল

  এম.কামাল উদ্দিন, রাঙামাটি

০৪ এপ্রিল ২০২১, ১১:৪১
রাঙামাটিতে যত্রতত্র বিক্রি হচ্ছে জ্বালানি তেল
ভাসমান তেলের দোকান সমতা ট্রেডার্স (ছবি : দৈনিক অধিকার)

রাঙামাটিতে অবৈধভাবে যত্রতত্র জ্বালানি তেল বিক্রি করা হচ্ছে। শহরের বিভিন্ন স্থানে অবৈধভাবে বিক্রি করা হচ্ছে জ্বালানি তেল। শহরের সমতা ঘাট মেসার্স সমতা ট্রেডার্সসহ সদর উপজেলার মধ্যে বেশকিছু অবৈধ তেলের দোকানে তেল বিক্রি করতে দেখা গেছে।

ইতিমধ্যে সমতা ঘাট এলাকায় দীপক বিকাশ চাকমা অবৈধ জলভাসা তেলের পাম্প মেসার্স সমতা ট্রেডার্স এর বিরুদ্ধে আইনগত প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসনকে অবহিত করেন। কিন্তু তারপরও বহাল তবিয়তে রয়ে গেছে এই তেলের পাম্পটি। স্থানীয়রা বলেন, সমতা ঘাট একটি জনবহুল নৌ যান ঘাট। তাই হ্রদে ভাসমান মেসার্স সমতা ট্রেডার্স জনগণের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে। এখানে যে কোন সময় বড় ধরনের বিপদের আশংকা রয়েছে। প্রতি মঙ্গলবার ও বুধবার হাটের দিন হ্রদে ভাসমান মেসার্স সমতা ট্রেডার্স এর সাথে জনগণের সাথে ঝামেলা সৃষ্টি হয়। কর্তৃপক্ষের উচিৎ এই হ্রদে ভাসমান মেসার্স সমতা ট্রেডার্স বন্ধ করে দেওয়া।

মেসার্স উজানী কুঠির মালিক দীপক বিকাশ চাকমা বলেন, আমি বৈধভাবে দীর্ঘদিন যাবৎ তেলের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি। কিন্তু আমার পার্শ্ববর্তী হ্রদে ভাসমান মেসার্স সমতা ট্রেডার্স অবৈধভাবে ব্যবসা করে আসছে। প্রশাসনকে বলার পরও কোন প্রতিকার পেলাম না। প্রশাসনের কাছে আমার প্রশ্ন তাহলে যে কেউ যেখানে সেখানে মনমত তেল বিক্রি করতে পারবে। প্রশাসনের কাছে আমার সবিনয় অনুরোধ মেসার্স সমতা ট্রেডার্সসহ সকল অবৈধ তেলের দোকান বন্ধ করে দেওয়া হোক।

তিনি বলেন, জলে ভাসমান অবস্থায় তেল বিক্রি করলে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ ভাসমান অবস্থায় জ্বালানি তেল বর্জ্য স্থাপনে অনাপত্তি ছাড়পত্র নিয়ে তেলের দোকান খুলতে হয়। এছাড়াও জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষের অনুমতি প্রয়োজন হয়। এসব কিছুই নেই মেসার্স সমতা ট্রেডার্সের।

মেসার্স সমতা ট্রেডার্স এর মালিক সমরেশ দেওয়ান বর্তমানে মালিকের পক্ষে মেসার্স সমতা ট্রেডার্স পরিচালনা করছেন নির্মল বৈদ্য।

এ ব্যাপারে মুঠোফোনে নির্মল বৈদ্য বলেন, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের অনুমোদন আছে তবে অন্য কোন কাগজপত্রাদি নেই। চাইলে আপনাকে দেখাতে পারব।

জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) মো. ইসলাম উদ্দিন জানান, এসব তেলের লাইসেন্স যারা দেয় তাদের কোন অফিস রাঙামাটিতে নেই। তারপরও এ বিষয়ে তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। যাদের বৈধ কাগজপত্রাদি নেই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড