• সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ২৯ চৈত্র ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ, হাসপাতাল ভাংচুর

  ভৈরব প্রতিনিধি

০১ মার্চ ২০২১, ১৬:১৯
হাসপাতাল ভাঙচুর
প্রসূতি মৃত্যুর অভিযোগে হাসপাতালে হামলা ও ভাঙচুরের একটি মুহূর্ত। ছবি : দৈনিক অধিকার

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ভুল চিকিৎসায় রাশেদা নামে এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ তুলে হাসপাতালে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়েছেন নিহতের স্বজনরা।

সোমবার (১ মার্চ) দুপুরে পৌর শহরের স্টেডিয়াম সংলগ্ন সাজেদা আলাল নামে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ওই হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নিহতের স্বজনরা জানায়, উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের মানিকদী গ্রামের আবুল বাসারের প্রসূতি স্ত্রী রাসেদা বেগমকে শহরের সাজেদা আলাল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনরা। পরে হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শে প্রসূতিকে সিজারিয়ান অপারেশনের জন্য থিয়েটারে নিয়ে যাওয়ার পর একটি কন্যা সন্তান জন্ম দেয়। এর কিছুক্ষণ পরে অপারেশন থিয়েটারেই রাসেদা বেগমের মৃত্যু হয়।

নিহতের স্বামী আবুল বাসারের দাবি, হাসপাতালে তার স্ত্রীকে নিয়ে আসার পর সব পরীক্ষা-নিরিক্ষা শেষে সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়। পরে সিজারের মাধ্যমে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। এই নবজাতক তাদের পঞ্চম সন্তান। কিন্তু দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও রাসেদা বেগমকে বিছানায় না দেওয়ায় তাদের সন্দেহ হয়। পরে হাসপাতালের কক্ষে চিকিৎসককে না পেয়ে অনেক সময় পর নার্সদের মাধ্যমে রাসেদা বেগম মারা যাওয়ার খবর পান তারা।

আবুল বাসারের দাবি, ভুল চিকিৎসার কারণে তার স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে।

এ দিকে, বিষয়টিতে সাজেদা আলাল জেনারেল হাসপাতালের ম্যানেজার মাজহারুল ইসলাম জানান, একজন অভিজ্ঞ এনেস্থিসিয়া এবং একজন গাইনি স্পেশালিষ্ট ও সার্জনের মাধ্যমেই রাসেদার সিজারিয়ান অপারেশন করা হয়। এখানে চিকিৎসায় কোনো ভুল বা অবহেলা ছিল না। আসলে সবকিছু সঠিক থাকলেও একজন রোগীর অপারেশনের সময় দুর্ঘটনা হতে পারে বলে দাবি করেন তিনি।

তিনি বলেন, কোনোদিন কোনো হাসপাতাল বা কোনো চিকিৎসক চায় না কোনো একজন রোগী মারা যায়। এমন মৃত্যুতে আমরা মর্মাহত। কিন্তু একজন রোগী মারা যাবার পর তার স্বজনরা হাসপাতালে হামলা করবে, ভাঙচুর করবে- এটা কেমন আচরণ?

আরও পড়ুন : মানিকগঞ্জে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

হাসপাতাল মালিক পক্ষের দাবি, হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় হাসপাতালের প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

এ ব্যাপারে ভৈরব থানার ওসি মো. শাহিন দৈনিক অধিকারকে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড