• বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

জন্মান্ধ হলেও হাবিবুর অন্যকে দেন আলো

  রেজাউল করিম, দেবহাটা

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২০:১৪
হাবিবুর
হাবিবুর রহমান (ছবি : দৈনিক অধিকার)

বস্তুনিষ্ঠ ও সঠিক জ্ঞান আহরণের অন্যতম মাধ্যম হল সংবাদপত্র। পাঠক সহজে বিভিন্ন তথ্য ও জ্ঞান পেয়ে থাকেন সংবাদপত্র পাঠের মাধ্যমে। তাছাড়া বর্তমান সমাজের প্রায় প্রতিটা মানুষ সংবাদ মাধ্যমের সাথে কোন না কোন ভাবে জড়িত। ঠিক এই মহত জ্ঞানের আলো ছড়ানোর কাজের দায়িত্ব নিয়েছেন এমন এক মানুষ যার নিজের চোখের আলো না থাকলেও অন্যর চোখে আলো জ্বালিয়ে দিচ্ছেন তিনি। তেমনই একজন জন্মান্ধ ভিক্ষা না করে সৎ পথে উপার্জন করে অন্যের চোখে আলো জালানোর দায়িত্ব নিয়ে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের সৈয়দ আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান (৪৭)। জন্মান্ধ হওয়ায় বেঁচে থাকার তাগিদে পত্রিকা বিলি করে জীবিকা নির্বাহ করছেন তিনি। তিনি প্রতিদিন ৪/৫ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে কুলিয়া হতে পারুলিয়া বাস স্টান্ডে পত্রিকা নিতে আসেন। পারুলিয়া হতে স্থানীয়, আঞ্চলিক ও জাতীয় পত্রিকা নিয়ে পারুলিয়া গরুরহাট, সেকেন্দ্রা, কুলিয়া, বহেরাসহ আশেপাশে এলাকায় পত্রিকা বিলি করতে করতে বাড়িতে ফেরেন। তিনি রাস্তা দিয়ে চলার সময় কিছুটা অনুমান বা আন্দাজ করে মানুষের বাড়িতে, দোকানে পত্রিকা বিলির কাজ করেন।

জন্ম অন্ধ হওয়ায় রাস্তায় চলার সময় জীবনের ঝুঁকি থাকলেও সবকিছু উপেক্ষা করে প্রতিদিনের পত্রিকা মানুষের কাছে পৌঁছে দেন তিনি। ঝড়, বৃষ্টি, রৌদ্র সবকিছু মধ্যে একজন জন্মান্ধের পক্ষে এ কাজ দুরহ ব্যপার। তার পরেও হাবিবুরের কাজ দেখে প্রতিবন্ধী কথাটি হার মেনেছে। পত্রিকা বিলির মাধ্যমে সামান্য অর্থ পেয়ে খুব কষ্টের মধ্যে স্ত্রী, ১পুত্র ও এক কন্যার সংসার পরিচালনা করতে হয় তাকে। তিনি কোন ব্যক্তির দান বা অনুগ্রহ না নিয়ে নিজে পরিশ্রম করে জীবনযুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছেন। কেবলমাত্র উপজেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে সামান্য ভাতা ছাড়া তেমন কিছু আর্থিক সহায়তা গ্রহন করেন না।

আরও পড়ুন : সাংবাদিক হত্যার প্রতিবাদে বাঁশখালী প্রেসক্লাবের মানববন্ধন

হাবিবুর রহমান জানান, আমি সর্বদা চাই পাঠকের হাতে সময় মতো পত্রিকা পৌঁছে দিতে। আমার চলার পথে অনেক সমস্যা হয় কিন্তু কি করব ভিক্ষা না করে সৎ পথে উপার্জন করে শান্তি পাই।

হাবিবুর রহমানে মতো এমন একজন জন্মান্ধ হয়ে এ অসাধ্য কে সাধ্য করে জ্ঞানের আলো ছড়ানোর মহানুভব দায়িত্ব পালন করায় তার কর্মকাণ্ডকে সাধুবাদ জানিয়েছে এলাকাবাসী

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড