• মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বেলুনের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা  

  সারাদেশ ডেস্ক

২২ জানুয়ারি ২০২১, ২০:২২
সিলিন্ডার
বিস্ফোরিত সিলিন্ডার (ছবি : সংগৃহীত)

কক্সবাজার মহেশখালীর মাতারবাড়ীতে বেলুনের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

এক শিশু ঘটনাস্থলে মারা যাওয়ার পর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে আরেকজন ও চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজন মারা যান। এসময় শিশুসহ আরও ১০ জন আহত হয়।

মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাই চ্যানেল আই অনলাইনকে জানান, মাতারবাড়ীতে বেলুনের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনায় এ পর্যন্ত ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তিনি বলেন, এদের মধ্যে মাতারবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ মিয়াজী পাড়ার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মোহাম্মদ এহসান (১২) ঘটনাস্থলে মারা যায়। এছাড়া মাতারবাড়ী ইউনিয়নের সিকদার পাড়ার ফরিদুল আলমের ছেলে সাদেকুল ইসলাম রাহাত (১৩) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায়। পরে চমেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলুন বিক্রেতা ও গ্যাস সিলিন্ডারটির মালিক মোহাম্মদ আলমগীর (৪২) মারা যায়। কক্সবাজারের মহেশখালী মাতারবাড়ি আজিজুল উলুম মাদ্রাসার বার্ষিক দুই দিনের সভা চলছিল। আজ শুক্রবার ছিল বার্ষিক সভার শেষ দিন। মাদ্রাসার সভা উপলক্ষে পাশে মাতারবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে বেলুন বিক্রি করছিলেন আলমগীর হোসেন। এক পর্যায়ে গ্যাসর সেই বেলুনের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

আহতদের চকরিয়া ও চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে মাতারবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহমুদ উল্লাহ জানিয়েছেন। ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিস ও মহেশখালী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার জাহিদুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ওডি/

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড