• সোমবার, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ২২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বাবার চেয়ে ছেলের বয়স বেশি!

  সারাদেশ ডেস্ক

১৯ নভেম্বর ২০২০, ১৮:১৪
আবদুল কুদ্দুস
আবদুল কুদ্দুস (ছবি : সংগৃহীত)

নাটোরের গুরুদাসপুরের বৃদ্ধ আবদুল কুদ্দুস ভোটার আইডি কার্ডের বয়স নিয়ে পড়েছেন বিপদে। বয়স নিয়ে ভুল তথ্য থাকার কারণে তার চেয়ে তার ছেলের বয়স পাঁচ বছর বেশি হয়ে গেছে। এছাড়া ৭০ বছরের বেশি বয়সী এ বৃদ্ধের বয়স্কভাতা পাওয়া নিয়েও শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

আবদুল কুদ্দুসের বাবার নাম উমেদ আলী আর মায়ের নাম জরিনা বেগম। উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের বৃ-চাপিলা গ্রামে তার জন্ম। আইডি কার্ডে তার জন্ম তারিখ ১৯ এপ্রিল ১৯৭৪ দেখানো হয়েছে। আর তার ছেলে আবু সাঈদের জন্ম তারিখ দেখানো হয়েছে ১৯৬৯ সালে।

বৃহস্পতিবার সকালে আবদুল কুদ্দুস বলেন, দেশ স্বাধীনের সময় তার বড় ছেলে আবু সাঈদের বয়স ছিল ৩ বছর। অর্থাৎ তার জন্ম ১৯৬৯ সালে। বর্তমানে তার বয়স ৫১ বছর। অথচ আইডি কার্ড অনুযায়ী আমার বয়স ৪৬ বছর। এ কারণে আমার বয়স্কভাতা বাতিল হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

আবদুল কুদ্দুসের অভিযোগ, ভোটার আইডি কার্ডের এই ভুল নিয়ে তিনি সমাজসেবা দফতর ও নির্বাচন অফিসে ঘুরে ঘুরে ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। কিন্তু কোনো সমাধান পাচ্ছেন না।

এদিকে আবদুল কুদ্দুসের জন্মসনদে দেখা যায়, তার জন্ম তারিখ ১ জুন ১৯৪৭। জন্মসনদ অনুযায়ী বর্তমানে তার বয়স ৭৩ বছর। অথচ ভোটার আইডি কার্ডে বয়স এসেছে ৪৬ বছর।

এ বিষয়ে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বলেন, আইডি কার্ড অনুসারে তার বয়স ৪৬ বছর। ৬৫ বছরের নিচে হলে তার বয়স্ক ভাতা কার্ড বাতিল হবে। শারীরিক অবস্থা দেখে বোঝা যায় তার বয়স অন্তত ৭০-এর ঊর্ধ্বে। তারপরও কিছুই করার নেই।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ইসহাক আলী সরকার বলেন, ওই কার্ডের লেখা বয়স পরিবর্তনের ক্ষেত্রে জটিলতা আছে। তার স্ত্রীসহ সব সন্তানের আইডি কার্ড, বিবাহ কাবিননামা, এফিডেভিডসহ অনলাইনে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তার সাক্ষাৎকার নেয়া হবে। এর পরও তার বয়স পরিবর্তন যে হবেই তা নিশ্চিত করে বলা সম্ভব নয়।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড