• মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ঝালকাঠিতে পিলার সাদৃশ্য বস্তুসহ আটক ৮ 

  ঝালকাঠি প্রতিনিধি

১৮ নভেম্বর ২০২০, ১৯:২৬
করোনা
ছবি : সংগৃহীত

ঝালকাঠির রাজাপুরে একটি বাড়ি থেকে ১০ কোটি টাকা মূল্যের ব্রিটিশ সীমানা পিলার সাদৃশ্য একটি বস্তুসহ প্রতারক চক্রের ৮ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলা সদরের ওই এলাকার ইদ্রিস খন্দকারের বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়।

এ সময় তাদের সাথে থাকা একটি মাইক্রোবাস ও নয়টি মোবাইল ফোন জব্দ করে রাজাপুর থানা পুলিশ। ইদ্রিস খন্দকার ওই এলাকার মৃত ইসাহাক খন্দকারের ছেলে। অপর আটককৃতরা হল- চট্টগ্রামের বাকুলিয়ার মোহাম্মদ হোসাইনের ছেলে হোসাইন বিন শহিদ (৫০), বরিশালের হিজলার পভনিভায়া গ্রামের হাজি নুরুল ইসলামের ছেলে মাহতাব উদ্দিন, লক্ষ্মীপুরের বাজিপুর থানার ভবানিপুর গ্রামের ফয়েজ উদ্দিনের ছেলে মিজানুর রহমান (৪৫), ভোলার বোরহানউদ্দিনের ইদ্রিস আলীর ছেলে মহিউদিদন (৪০), ঢাকার দক্ষিণখানার ১২ নং সেক্টরের মোল্লারটেক এলাকার জমির উদ্দিনের ছেলে রতন উদ্দিন (৪৫), ভোলার লালমোহনের চরনিউলোর কাজেম আলীর ছেলে মেহেদি হাসান (৩৩) ও রাজাপুরের আঙ্গারিয়া গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম (৪০)।

উদ্ধারকৃত পিলারটির গায়ে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানী ১৮১৮ লেখা রয়েছে বলে জানান ওসি তদন্ত আবুল কালাম আজাদ।

রাজাপুর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, বাইপাস মোড়ের খন্দকার বাড়িতে পিলার চোরাচালান চক্রের কতিপয় সদস্য পিলার পাচারের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে দুপুরে ঐ বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। তবে উদ্ধারকৃত ওই পিলার সাদৃশ্য বস্তুটি আসলে ব্রিটিশ সীমানা পিলার কিনা তা সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না। বস্তুটি পরীক্ষা নিরীক্ষা ও তদন্তে আসল ঘটনা বেরিয়ে আসবে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থার প্রস্তুতি চলছে।

ওডি/

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড