• রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

৩৯ দিন পর কবর থেকে তোলা হলো লাশ

  নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধি

২২ অক্টোবর ২০২০, ২২:১৩
লাশ
ছবি : প্রতীকী

শ্বশুর বাড়ির লোকজনদের দাবী ছিল হার্ট অ্যাটাকে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ রোজিনার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের পরিবারের দাবী এটি একটি হত্যাকাণ্ড। ফলে কবর দেয়ার ৩৯ দিন পর রোজিনার লাশ কবর থেকে ময়নাতদন্তের জন্য উত্তোলন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের বন্দরের কল্যান্দি কবরস্থান থেকে ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে নিহত রোজিনার লাশ উত্তোলন করা হয়। নিহতের পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উত্তোলনের আদেশ দিয়েছিলেন আদালত। লাশ উত্তোলনের সময় উপস্থিত ছিলেন বন্দর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসমা সুলতানা নাসরীন,মামলার তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) নারায়ণগঞ্জের উপপরিদর্শক (এসআই) আবু সায়েম প্রমুখ।

জানা গেছে, বন্দর রাজবাড়ী এলাকার মুক্তিযোদ্ধা জব্বর সর্দারের মেয়ে রোজিনার বিয়ে হয়েছিল একই এলাকার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মুরাদের সাথে। বিয়ের পর তাদের সংসারে একটি ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। তবে স্বামীর সংসারে প্রায় সময় নির্যাতনের শিকার হতো রোজিনা। বিষয়টি পরিবারের লোকজনদের তেমন কিছু বলত না সে। কষ্ট চাঁপা রেখেই স্বামীর সংসারে শত নির্যাতনের পরেও সংসার করতে চেয়েছিল রোজিনা। দ্বিতীয় সন্তান গর্ভে থাকাবস্থায় ঠিকমতো

চিকিৎসাও করায়নি তার পাষণ্ড স্বামী। এমন অভিযোগ নিহতের পরিবারের। শেষ পর্যন্ত স্বামীর সংসার থেকে তাকে লাশ হয়ে বের হতে হয়েছিল। রোজিনার মৃত্যুর পর স্বামী মুরাদ, শাশুড়ি পিয়ারা বেগম,জিয়াসমিন,কুতুব উদ্দিনসহ বেশ কয়েকজন তার লাশ কল্যান্দি কবরস্থানে দাফন করে।

এ ব্যাপারে নিহত রোজিনার ভাই মাসুদ জানান,যেদিন রোজিনা মারা যায় সেদিন তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন আমাদের জানিয়েছিল তার বোন হার্ট অ্যাটাক করে মৃত্যু বরণ করেছে। তবে এরপর তিনি ও তার পরিবারের লোকজন নিশ্চিত হন যে, রোজিনার উপর শ্বশুর বাড়ির লোকজন প্রায় সময় নির্যাতন করতো। এ কথা জানার পরপরই তিনি নিজে বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত কবর থেকে লাশ উত্তোলনের জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

এ ব্যাপারে বন্দর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসমা সুলতানা নাসরীন গণমাধ্যমকে বলেন, আদালতের নির্দেশে কবর খুঁড়ে নিহতের লাশ উত্তোলন করার পর ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে পিবিআইয়ের তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আবু সায়েম বলেন, বাদী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে মামলা দায়ের করলে, আদালত পিবিআই নারায়ণগঞ্জকে তদন্তের নির্দেশ দেন। তদন্তের স্বার্থে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উত্তোলন করা হয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড