• বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

দুই দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত অর্ধশত, বাড়িঘর ভাংচুর

  ফরিদপুর প্রতিনিধি

২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:২৯
হাসপাতাল
ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ছবি : সংগৃহীত)

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার হামিরদী ইউনিয়নের সিংগাড়িয়া গ্রামে দুই দল গ্রামবাসীর মাঝে টানা দুই দিনের সংঘর্ষে নারী-পুরুষসহ কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়েছেন। একই ঘটনায় ছয়টি বাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে।

গতকাল রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সংঘর্ষের সূত্রপাতের পর আজ সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে দ্বিতীয় দফায় আবারও সংঘর্ষ বাধে। এ ঘটনায় সংঘর্ষে জড়িত সন্দেহে পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ।

এ দিকে, আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় দেলোয়ার মাতুব্বর, আবিলুত মাতুব্বর, আশরাফ তালুকদার, আকরাম তালুকদার, সোহেল মাতুব্বরসহ আরও তিনজনকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ (ফমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানায়, সিংগাড়িয়া গ্রামে ইন্সপেক্টর বেলাল নামে এক ব্যক্তি রয়েছেন যিনি বেলাল দারোগা নামেই পরিচিত। তাদের তিন ভাই পুলিশে চাকরি করেন। তাদের সাথে স্থানীয় প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের দেলোয়ার মাতুব্বরদের বিরোধ রয়েছে। গ্রামের ঈদগাহের জমি বদলের ঘটনাকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি তাদের মাঝে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।

এরই জেরে রবিবার দুপুরে দেলোয়ার মাতুব্বরের পক্ষের ইউসুফ মাতুব্বরের বাড়ির সামনে স্তূপাকারে রাখা ইট বেলাল দারোগার লোকজন নিয়েছে বলে দোষারোপ করা হয়। এ নিয়ে উভয় গ্রুপ সংঘবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্র ঢাল, সড়কি, টেটা ও ইট-পাটকেল নিয়ে দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া চালায়। প্রায় ঘণ্টাখানেক সময়ের ওই সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের কমপক্ষে ২০ জন আহত হন।

এরপর সোমবার সকালে দেলোয়ার মাতুব্বরের পক্ষের রোমান মোল্লা বাজারে যাওয়ার পথে প্রতিপক্ষের সাঈদ, আবু হায়াত, সবুজ ও সুমনের সাথে কথা কাটাকাটি হলে ফের সংঘর্ষ বাধে। পরে খবর পেয়ে ভাঙ্গা থানা ও দাঙ্গা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আরও পড়ুন : ভালুকায় ফায়ার সার্ভিসের অগ্নিনির্বাপণ মহড়া

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ভাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শফিকুর রহমান দৈনিক অধিকারকে বলেন, গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ইনপেক্টর বেলাল ও দেলোয়ার মাতুব্বরের দলের মাঝে সংঘর্ষ হয়। এখন পর্যন্ত এক পক্ষের অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক বিষয়টিতে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে বর্তমানে ওই এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে বলেও জানিয়েছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড