• সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

১৮১ দিন বন্ধের পর দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত ষাটগম্বুজ মসজিদ

  বাগেরহাট প্রতিনিধি

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫:৩৫
বাগেরহাট
ষাটগম্বুজ মসজিদ

হযরত খানজাহান আলি (রহ:) অমর সৃষ্টি ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ সাইড ষাটগম্বুজ মসজিদ ও যাদুঘর দেশের করোনা পরিস্থিতির কারণে ১৮১ দিন বন্ধ থাকার পর আজ বুধবার ভোর থেকে দেশী-বিদেশী পর্যটক ও দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

প্রথম দিনে পর্যটক ও দর্শনার্থীদের করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূর্বের ন্যায় টিকিট কেটে ষাটগম্বুজ মসজিদ ও যাদুঘরে প্রবেশ করতে দেখা গেছে। তবে, প্রথম দিনে পর্যটক ও দর্শনার্থীদের সংখ্যা ছিল কম। ষাটগম্বুজ মসজিদ ও যাদুঘর পর্যটক দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হলেও বাগেরহাটের অপর ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ সাইড সুন্দরবন করোনা পরিস্থিতির কারণে পর্যটকদের প্রবেশ এখনও নিষিদ্ধ।

বাগেরহাট প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের কাস্টোডিয়ান মো. গোলাম ফেরদৌস জানান, দেশে করোনা পরিস্থিতির কারণে ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ সাইড ষাটগম্বুজ মসজিদ ও যাদুঘর সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে পর্যটক-দর্শনার্থীদের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়। সেই থেকে ১৮১ দিন বন্ধ থাকার পর সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে আজ বুধবার ভোর থেকে সবধরনের পর্যটক-দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। তবে আগের মত গেট দিয়ে একসাথে অনেক পর্যটক-দর্শনার্থীদের প্রবেশ করতে দেয়া হবেনা। সবাইকে করোনা স্বাস্থ্যবিধি এই ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ সাইডে প্রবেশ ও ঘোরাঘুরি করা যাবে।

এদিকে, বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন জানান, ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ সাইড সুন্দরবন এখনই সব ধরনের পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়ার বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত হয়নি।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড