• শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চাঁদা না দেওয়ায় মারধর, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

  সাভার প্রতিনিধি, ঢাকা

১২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:৫২
স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা
অভিযুক্ত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কামরুল ইসলাম নয়ন (ছবি : দৈনিক অধিকার)

চাঁদা না দেওয়ায় চা দোকানিকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে পায়ের হাড় ভেঙে দেওয়ার অভিযোগে সাভারের আশুলিয়ায় এক ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম।

এর আগে একই দিন সকালে ভুক্তভোগী চা দোকানি নজরুল ইসলাম থানায় উপস্থিত হয়ে দুইজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজন আসামি করে ওই মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার আসামিরা হলো- আশুলিয়ার পাথালিয়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও আশুলিয়ার পানধোয়া এলাকার আব্দুল কাদেরের ছেলে কামরুল ইসলাম নয়ন (২৮)। এর আগেও তার বিরুদ্ধে স্বর্ণের দোকান লুটের মামলা রয়েছে। এছাড়া অপরজন হলো সাইফুল ইসলামের ছেলে নিলয় (২২)।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, পানধোয়া এলাকায় চায়ের দোকান করে কোনোমতে সংসার চালায় নজরুল ইসলাম। তার দোকানে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা নয়ন তার সহযোগীসহ চা ও সিগারেটের আড্ডা বসাত। তবে দোকানিকে এক টাকাও দোকানিকে না দিয়ে উল্টো প্রতিদিন ২০০ টাকা করে চাঁদা চায় নয়ন। এতে চায়ের দোকানি নজরুল চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে তার দোকানের চা ও সিগারেটের দাম চাইলে ক্ষিপ্ত হয় নয়ন।

পরে গত ৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় তার দোকানে কয়েক দিনের চা ও সিগারেট বিক্রির আনুমানিক ৫ হাজার টাকা ও ১০ হাজার টাকার সিগারেট লুট করে নয়ন ও তার সহযোগীরা। একই সাথে তাকে ওই এলাকার একটি কক্ষে আটকে রেখে লোহার রড় দিয়ে হাতে-পায়ে ও পিঠে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এ সময় তার ডান পায়ের গোড়ালিতে পিটিয়ে হাড় ভেঙে দেয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা নয়ন।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম দৈনিক অধিকারকে জানান, আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে।

আরও পড়ুন : নির্যাতন করে হত্যার স্বীকারোক্তি আদায়, পুলিশের বিচার দাবি গৃহবধূর

এ দিকে, ঢাকা জেলা উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি হাজী ইমতিয়াজ আহমেদ দৈনিক অধিকারকে বলেন, কোনো দুষ্কৃতিকারী ও হাইব্রিড নেতা আওয়ামী লীগের কোনো অঙ্গ সংগঠনে থাকবে না। এই লক্ষ্যে ঢাকা জেলা উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগ কাজ করে যাচ্ছে। কোনো নেতা যদি অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অন্যদিকে, ঢাকা জেলা উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সায়েম মোল্লা বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কোনো নেতাকর্মী যদি অপরাধ কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকে, তাহলে আমরা তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটিকে নির্দেশ দেব।

এর আগে গত ৮ জুলাই আশুলিয়ার পাথালিয়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুলহাস হোসেনকে মোটরসাইকেল চুরির দায়ে পাথালিয়া থেকে গ্রেপ্তার করে মানিকগঞ্জ সদর থানা পুলিশ। এ ঘটনার পর তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে একই এলাকার পূর্ণতা জুয়েলার্স ব্যবসায়ীর কাছে চাঁদাবাজি, জুয়েলার্স লুট ও মারধরের শিকার হয়ে মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী কার্তিক চন্দ্র ঘোষ। আবারও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তিতে মামলা দায়ের করল চা দোকানি।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড