• শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অনুমোদনহীন হাসপাতাল, উপদেষ্টার বক্তব্য অপারেশনে রোগী মারা যেতেই পারে

  ভৈরব প্রতিনিধি

১৪ আগস্ট ২০২০, ২৩:২৭
গ্রামীণ জেনারেল হাসপাতাল (ছবি : দৈনিক অধিকার)

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ভুল চিকিৎসায় খাদিজা বেগম (২২) নামের এক গৃহবধূর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (১৪ আগস্ট) দুপুরে পৌর শহরের নিউটাউন এলাকায় গ্রামীণ জেনারেল হাসপাতালে এই ঘটনাটি ঘটে। নিহত খাদিজা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল থানার রাজাপুর ইউনিয়নের ওরোইল গ্রামের শহিদুল্লাহর মেয়ে।

জানা যায়, খাদিজা বেগমের পেটে ব্যথা হলে (১৩ আগস্ট) বৃহস্পতিবার বিকালে তাকে তার স্বামীসহ অভিভাবকরা গ্রামীণ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে। তখন ডাক্তারসহ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জানায় তার পেটে পিত্তে পাথর হয়েছে, তাই অপারেশন করতে হবে। ডাক্তারের কথামত বৃহস্পতিবার বিকালেই তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করে। আজ দুপুর দেড়টায় তার অপারেশনের সময় অতিরিক্ত রক্তক্ষয়ে রোগী মারা যায় বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দাবী করে। তার মৃত্যুর পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীর অভিভাবককে সমঝোতা করার চেষ্টা করছে এমন অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে নিহত খাদিজার শুশুর মো. মলফত আলী অভিযোগ করে জানায়, আমার পূত্রবধূকে পিত্তে পাথর অপারেশন করতে এনে ডাঃ মাসুদুর রহমান ভুল অপারেশনে তাকে মেরে ফেলেছে । ঘটনার পর পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিহত রোগীকে জোর করে এম্বুলেন্সে ঢুকিয়ে বাড়ী নিয়ে যেতে বলে। ঘটনার পর হাসপাতালের ডাক্তার, নার্স, ম্যানেজারসহ সকল কর্মচারী পালিয়ে গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ বুলবুল আহমেদ জানান, ঘটনার খবর পেলেও আমি এখনও কোন অভিযোগ পায়নি। গ্রামীণ জেনারেল হাসপাতাল পরিচালনার আবেদন করলেও তাদেরকে এখনও অনুমোদন দেয়া হয়নি। গত তিনদিন আগে সিভিল সার্জনের একটি টিম এই হাসাপাতালে পরিদর্শনে গিয়েছিল। সেদিন হাসপাতালে কিছু অনিয়ম পাওয়া গেছে এবং প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি দেখাতে পারেনি তারা । পরে হাসপাতাল কর্তপক্ষকে ৭ দিনের সময় দেয়া হয়েছে তা পূরণ করার জন্য। ঘটনাটির বিষয়ে আমি লিখিত অভিযোগ পেলে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি ক্রমে ঘটনা তদন্ত করা হবে বলে তিনি জানান।

এই ঘটনার পর ডাক্তার, নার্স, ম্যানেজার, কর্মচারীরা পালিয়ে যাওয়াই তাদের বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

তবে হাসপাতালের উপদেষ্টা তোফাজ্জল হক জানান, অপারেশনে রোগী মারা যেতেই পারে। অপারেশনের সময় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে রোগী মারা গেছে যা ডাক্তার বলেছে। এটা একটি দূর্ঘটনা। রোগীর অভিভাবকের সাথে সমঝোতা করার চেষ্টা করছি বলে তিনি জানান।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড