• রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ছোট ছেলেকে সাথে নিয়ে বড় ছেলেকে খুন করলেন বাবা!

  জামালপুর প্রতিনিধি

১৩ আগস্ট ২০২০, ২৩:০০
খুন
ছোট ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে বড় ছেলেকে খুন করলেন বাবা! (প্রতীকী ছবি)

ইদুল আজহার পরদিন জামালপুরে অজ্ঞাত একটি লাশ উদ্ধারের ঘটনায় তদন্ত সাপেক্ষে হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। ছোট ছেলেসহ আরও দুইজনকে সঙ্গে নিয়ে মাদকসেবী ও বড় ছেলে আল আমিনকে খুন করেন বাবা! এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত আল আমিন শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী উপজেলার কাজীগলি গ্রামের মো. আমিরুল ইসলামের বড় ছেলে।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে জামালপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার মো. দেলোয়ার হোসেন এই তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, ইদুল আজহার পরদিন (২ আগস্ট) সদর উপজেলার দিগপাইত ইউনিয়নের পূর্বপাড়দিঘুলী এলাকায় একটি কালভার্টের পাশে ভাসমান অবস্থায় একটি লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। এরপর লাশটির ফিঙ্গার প্রিন্টের মাধ্যমে পরিচয় শনাক্ত হলে নিহতের বাবা পরদিন (৩ আগস্ট) জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে এসে লাশটি তার বড় ছেলের বলে শনাক্ত করেন।

এ ঘটনার পর নিহতের বাবা গত ৫ আগস্ট বাদী হয়ে জামালপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর হত্যার কারণ অনুসন্ধানকালে পুলিশ জানতে পারে নিহত আল আমিন মাদকাসক্ত ছিল। পরে গোপন সংবাদে অভিযান চালিয়ে গত ১০ আগস্ট নিহতের ছোট ভাই আরিফুল ইসলামকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

একপর্যায়ে জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায়, মাদকাসক্ত হওয়ায় বড় ভাইকে খুন করার পরিকল্পনা করা হয়। এরপর পরিকল্পনা অনুযায়ী ১ আগস্ট আগে থেকেই তার বাবা মো. আমিরুল ইসলাম, নানা মো. আক্তারুজ্জামান দুদু (৪৮) ও রুবেল মিয়া (২০) জামালপুর সদরের ছোনটিয়া এলাকায় অবস্থান নেয়। পরে বাবাকে বাড়ি নিয়ে আসার কথা বলে ছোট ভাই আরিফুল ইসলাম বড় ভাই আল আমিনকে মোটরসাইকেলে করে সাথে নিয়ে ঘটনাস্থলে আসে। সেখানে আগে থেকেই অবস্থান নেওয়া নিহতের বাবা ও অপর দুইজন আল আমিনের হাত-পা বেঁধে গলায় গামছা পেঁচিয়ে তাকে হত্যা করে। পরে ধান ক্ষেতে তার লাশ ফেলে রেখে যায়।

আরও পড়ুন : এ যেন আরেক সাহেদ! কোটি টাকার খেলা ‘ডিজে শাকিলের’

আরিফুল ইসলামের কাছ থেকে হত্যার স্বীকারোক্তি পাওয়ার পর হত্যাকাণ্ডে জড়িত জামালপুর সদর উপজেলার নারায়ণপুর গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে মো. আক্তারুজ্জামান দুদু ও কাষ্টসিংগা গ্রামের মফিজ উদ্দিনের ছেলে রুবেল মিয়াকে ১১ আগস্ট নিজ নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তার তিনজনই ঘটনার একই রকম বর্ণনা দেয়।

পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন জানান, আদালতে সোপর্দের পর ওই তিনজনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি নিহতের বাবাকেও গ্রেপ্তারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড